অন্ধ্রপ্রদেশ, উড়িষ্যাকে আগাম ৬০০, বাংলাকে ৪৫০ কোটি টাকার, পলিটিক্যাল সায়েন্স জানি কিন্তু এই সায়েন্স নিয়ে তো জানা নেই! শাহকে খোঁচা মমতার

120

ওয়েব ডেস্ক, ২৪ মেঃ আমফানের টাকা না পাওয়া নিয়ে একাধিকবার ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গিয়েছে মমতাকে। এবার ‘ইয়াসে’র আগেই শুরু হয়ে গেল কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত। ফের বাংলা বঞ্চনার শিকার বলে অভিযোগ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অমিত শাহের সঙ্গে যশ মোকাবিলা নিয়ে বৈঠকে আগাম অর্থ সাহায্য নিয়ে প্রশ্ন তুললেন মুখ্যমন্ত্রী। সোমবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন বাংলা, ওড়িশা এবং অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রীরা।

সেই বৈঠক শেষে নবান্নে সাংবাদিকদের কাছে মমতার দাবি, ঝড় মোকাবিলার ক্ষেত্রে অন্ধ্রপ্রদেশ এবং উড়িষ্যাকে আগাম ৬০০ কোটি টাকা করে দিচ্ছে কেন্দ্র। সেখানে অনেক বড় রাজ্য হলেও বাংলাকে দেওয়া হচ্ছে ৪৫০ কোটি টাকার কিছু বেশি।

মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন, অন্ধ্রপ্রদেশ এবং উড়িষ্যার থেকে বাংলা অনেক বড় রাজ্য, তাও বাংলাকে কম টাকা দেওয়া হল কেন? মুখ্যমন্ত্রী জানান, তিনি অমিত শাহকে এই প্রশ্ন করায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তাঁকে জানান। মমতা জি এটা সায়েন্টিফিক ভিউ পয়েন্ট দিয়ে বিচার করা হয়। এটা নিয়ে আপনার সঙ্গে আমরা পরে কথা বলব। মুখ্যমন্ত্রী জানান, এরপর তিনি আর কোনও প্রশ্ন করেননি। সাংবাদিকদের সামনে মমতা ব্যানার্জির কটাক্ষ, পলিটিক্যাল সায়েন্স সম্পর্কে আমার কিছু কিছু জানা আছে কিন্তু এই সায়েন্স নিয়ে তো সেভাবে জানা নেই!

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আমি তুলনা করার পক্ষপাতি নই। ওড়িশা, অন্ধ্রপ্রদেশ বাংলার পড়শি বোন। তাদের টাকা পাওয়া নিয়ে আমাদের কোনও সমস্যা নেই। কিন্তু তা বলে বাংলার সঙ্গে বঞ্চনা করতে হবে? মমতার অভিযোগ, কেন্দ্র বলেছিল সম্পূর্ণ সহযোগিতা করা হবে। কিন্তু আগাম অর্থ দেওয়ার সময় রাজ্য ভেদে পরিমাণ বদলে যাচ্ছে কেন?

সেই সঙ্গে তিনিও এও অভিযোগ করেন, এর আগে আমফানে রাজ্যের যে টাকা প্রাপ্য ছিল, তার থেকে কম পাঠিয়েছে কেন্দ্র।তাঁর কটাক্ষ, আমফানের পর কেন্দ্রীয় দল এল, সব ঘুরে দেখে গেল কিন্তু টাকা এল না। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, আমরা জানিয়েছি ঝড় থেমে গেলে ফিল্ড সার্ভে করে কী প্রয়োজন কেন্দ্রকে জানাব। মমতা ব্যানার্জির সংযোজন, যদিও পাব কিনা জানি না, কিন্তু জানাতে হবে।