কেরালার বিমান দুর্ঘটনায় ২ পাইলট সহ মৃত্যু ২১ জনের, শোকপ্রকাশ মোদী ও সাহের

119

ওয়েব ডেস্ক, ৮ আগস্টঃ করোনা আবহের মাঝে আবারও ফের ভয়াবহ বিমান দুর্ঘটনা। এবারে দুর্ঘটনার শিকার এয়ার ইন্ডিয়ার যাত্রীবাহী বিমান। জানা গিয়েছে,  দুবাই থেকে ভারতগামী এয়ার ইন্ডিয়ার বিমান রানওয়েতে নামার সময় পিছলে গিয়ে ভয়াবহ দুর্ঘটনার কবলে পড়ে৷ ঘটনাটি ঘটেছে কেরলের কোজিকোড়ের কারুপুর আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে।ঘটনায় কমপক্ষে ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে রাত ১২টা পর্যন্ত খবর। এর মধ্যে ২ জন পাইলট ও একটি শিশুও রয়েছে। কেরল পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই সংখ্যা আরও খানিকটা বাড়তে পারে। পাশাপাশি, এই উড়ানে উপস্থিত সকলেই আহত হয়েছেন।

জানা গিয়েছে, দুবাই থেকে কেরলের কোঝিকোড় আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ১৯১ জন যাত্রী নিয়ে ল্যান্ড করার সময়ই ঘটে দুর্ঘটনা। প্রচণ্ড গতি ও তুমুল বৃষ্টির জেরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রানওয়ে ছাড়িয়ে অনেকটা এগিয়ে গিয়ে মাটিতে আছড়ে পড়ে বিমানটি। সঙ্গে সঙ্গে দু’টুকরো হয়ে যায় সেটি। ঘটনায় অনেক যাত্রীই গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

এদিকে, যাত্রীদের পরিজনদের জন্য হেল্পলাইন নম্বর জারি করেছে প্রশাসন।০৪৯৫-২৩৭৬৯০১(0495 – 2376901) নম্বরে ফোন করে খোঁজ নিতে পারবেন দুর্ঘটনাগ্রস্ত বিমানটিতে সওয়ার যাত্রীদের আত্মীয়রা।

ভয়াবহ এই দুর্ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সহ আরও বহু রাজনৈতিক নেতা। কেরালার মুখ্যমন্ত্রী পিনারায়ী বিজয়নের সঙ্গে কথা বলেছেন নমো। তিনিই জানিয়েছিলেন ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছেন কোজিকোড় ও মালাপুরমের জেলা শাসকরা এবং আইজি অশোক যাদব। তাঁরা নিজেরা দাঁড়িয়ে থেকে উদ্ধার কাজের তদারকি করছেন।

প্রধানমন্ত্রী তাঁর ট্যুইটে লেখেন, ‘কোজিকোড়ের বিমান দুর্ঘটনায় গভীর মর্মাহত। যাঁরা প্রিয়জনদের হারালেন তাঁদের প্রতি রয়েছে আমার সমবেদনা ও প্রার্থনা। আহতরা দ্রুত সেরে উঠুন এই প্রার্থনাই করছি। কেরালার মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। সরকারি আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে রয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্তদের সব রকম সাহায্য করা হবে।’