কোচবিহারে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন করোনা আক্রান্ত ৯৯ বছরের বৃদ্ধা, আশার আলো দেখছেন বাসিন্দারা

207

কোচবিহার, ২১ মেঃ করোনা নিয়ে যখন গোটা দেশ জুড়ে মৃত্যু মিছিলের খবর। মানুষ যখন ক্রমশই উদ্বিগ্ন হয়ে উঠছে।ঠিক তখন আশার আলো দেখাল কোচবিহার এমজেএন মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের চিকিৎসকরা। তাঁদের চিকিৎসায় সেরে উঠলেন ৯৯ বছরের এক করোনা আক্রান্ত বৃদ্ধা।

ওই বৃদ্ধার নাম আরতি ভট্টাচার্য। তিনি কোচবিহার ২ নম্বর ব্লকের খাগরাবাড়ি এলাকার বাসিন্দা। ২৯ এপ্রিল করোনা পজেটিভ হয়ে কোচবিহার এমজেএন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন আরতি দেবী। করোনা পজেটিভ ছাড়াও তাঁর ডায়াবিটিস, হার্টের সমস্যা সহ একাধিক শারীরিক সমস্যা ছিল। কিন্তু চিকিৎসক ও চিকিৎসা কর্মীদের চেষ্টায় ২২ দিন পর করোনা মুক্ত হয়ে এদিন তিনি হাসপাতালে থেকে বাড়ি ফিরলেন। 

নব্বই উর্ধ ওই মহিলা চিকিৎসায় সারা দিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার ঘটনায় চিকিৎসক চিকিৎসা কর্মীদের পাশাপাশি পরিবারের লোকজন ও প্রশাসনিক কর্তারাও খুশি। কোচবিহারের জেলা শাসক পবন কাদিয়ান নিজেই সংবাদ মাধ্যমকে ওই খবর জানিয়েছেন।

কোচবিহার এমজেএন মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের সহকারী সুপার দীপেন্দু দাস বলেন, “ আরতিদেবী করোনা পজেটিভ হয়ে ভর্তি হয়েছিলেন। তাঁর অন্যান্য অসুস্থতাও ছিল। ফলে অবস্থা অনেকটাই সঙ্কট জনক ছিল। কিন্তু হাসপাতালের চিকিৎসক ও নার্সদের সঠিক চিকিৎসায় উনি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। আজ তাঁকে ছুটি দেওয়া হয়েছে।”

আরতি দেবীর ছেলে প্রবীর কুমার ভট্টাচার্য বলেন, “ আমরা পরিবারের লোকজন খুব উদ্বেগে ছিলাম। শেষ পর্যন্ত মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসক, নার্স সহ অন্যান্য কর্মীদের ঐকান্তিক চেষ্টায় আমার মা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরছেন। এর জন্য সকলের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ।”