স্ট্যান্ডে টোটো রাখা নিয়ে বচসা ও কুপিয়ে খুনের চেষ্টা এক যুবককে

33

বিশ্বজিৎ সরকার, মালদাঃ স্ট্যান্ডে টোটো রাখা নিয়ে বিবাদের জেরে গুরুতর আহত এক টোটো চালক। দুই টোটো চালকের মধ্যে টোটো রাখা নিয়ে বচসা শুরু হয় আর এই বচসাকে কেন্দ্র করে এক যুবককে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠল প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে।

আক্রান্ত যুবকের নাম ঈশা শেখ। তাঁর বয়স ২৫ বছর। বর্তমানে তিনি চিকিৎসাধীন অবস্থায় মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার রাতে বৈষ্ণব নগর থানার ১৬ মাইল এলাকায়। এই ঘটনায় অভিযুক্তরা হলেন ইলিয়াস শেখ, বাশির শেখ, জুবেল শেখ সহ বেশ কয়েকজন।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বিগত চার মাস আগে স্ট্যান্ডে টোটো রাখা নিয়ে গণ্ডগোল বাধে ইলিয়াস শেখের সাথে তার কাকা সিস মোহাম্মদের। সেই পুরনো বিবাদকে কেন্দ্র করেই গণ্ডগোলের সূত্রপাত। গতকাল রাতে বৈষ্ণব নগর থানার গোলাবাড়ি এলাকা থেকে বাড়ি ফিরছিলেন ঈশা শেখ। ফেরার সময় ১৬ মাইল এলাকায় অভিযুক্তরা তার পথ আটকায়। এরপর ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কোপ মারে তাঁকে। চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে আসলে সেখান থেকে দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যায়।

আক্রান্ত যুবককে রাতে চিকিৎসার জন্য প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় কালিয়াচক হাসপাতালে। তারপর অবস্থার অবনতি হলে শনিবার রাতে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় আক্রান্ত ঈশা শেখকে। এই ঘটনায় আক্রান্ত ঈশা শেখের পরিবারের পক্ষ থেকে বৈষ্ণব নগর থানায় অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে কালিয়াচক থানার পুলিশ। তবে শুধু টোটো রাখা নিয়ে বচসা নাকি এর পেছনে অন্য কোন কারণ রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।