রাজ্যে ভ্যাকসিন সঙ্কট জানিয়ে এদিন প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি পাঠালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

14

ওয়েব ডেস্ক, ১৫ জুলাইঃ ধীরে ধীরে সুস্থ হচ্ছে বাংলা। কমছে সংক্রমণের হার। ছন্দে ফিরছে জনজীবন। বৃহস্পতিবার নবান্ন থেকে সাংবাদিক বৈঠক করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই জানালেন রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি। ভ্যাকসিন প্রসঙ্গে তুলোধোনা করলেন কেন্দ্রকে। জানালেন, ভ্যাকসিন পাচ্ছেন না জানিয়ে এদিন প্রধানমন্ত্রীকে ফের চিঠি পাঠিয়েছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “ বর্তমানে কোভিড পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। দৈনিক সংক্রমণ ৮০০ থেকে ৯০০-এর মধ্যে রয়েছে। তবে আরও কমানোর চেষ্টা করছি। পজিটিভিটি রেট কমে দাঁড়িয়েছে ১.৫ শতাংশ। ৯৮ শতাংশ ডিসচার্জ রেট। ইতিমধ্যেই আড়াই কোটি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। ১.৮ কোটি মানুষের দুটো ডোজই নেওয়া হয়ে গিয়েছে।”  মুখ্যমন্ত্রী জানান, রাজ্যে মোট ১৪ কোটি ভ্যাকসিন প্রয়োজন। এরপরই কেন্দ্রকে আক্রমণ করেন তিনি। বলেন, “আমরা ভ্যাকসিন পাচ্ছি না। আজ পর্যন্ত পেয়েছি মাত্র ২.১২ কোটি। নিজেরা ষাট কোটি টাকা খরচ করে ১৮ লক্ষ টিকা কিনেছি। চাইলে প্রতিদিন আমরা ১০ লক্ষ মানুষকে টিকা দিতে পারি। কিন্তু আমাদের কাছে টিকাই আসছে না।”

অভিযোগের সুরে এদিন মমতা বলেন, “ভ্যাকসিনেশনের কাজ সব থেকে ভাল হয়েছে বাংলায়। কিন্তু আমরাই টিকা পাচ্ছি না। বিজেপি শাসিত রাজ্য গুলিকে বেশি ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে। কেন্দ্র বাংলাকে ত্রাণের টাকা দেবে না, প্রাপ্য টাকা দেবে না, ভ্যাকসিন দেবে না, এটা অন্যায়। পরিকল্পনা করে বাংলার নামে বদনাম করা হচ্ছে। বাংলার বিরুদ্ধে চক্রান্ত চলছে।” অভিমানের সুরে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আমি আজও প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছি ভ্যাকসিনের জন্য। হয়তো উত্তর পাব না। কিন্তু আমার দায়িত্ব জানানো, তাই চিঠি লিখে জানালাম। পরবর্তীতেও জানাব।”