খাদ্যের খোঁজে লকালয়ে ঢুকে তাণ্ডব চালাল একটি হাতি

45

জলপাইগুড়ি, ১১ জুলাইঃ খাদ্যের লোভে দুটি গালামাল দোকান সহ তিনটি বাড়িতে হানা দিলো হাতি। দোকানের দেওয়াল ভেঙে সাবার করে দোকানের খাদ্যদ্রব্য। এছাড়াও তিনটি ঘরেও হানা দিয়ে আংশিক ক্ষতি করে। ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে ক্ষতিপূরনের দাবিতে বনকর্মীদের আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখায় গ্রামবাসী। ঘটনাটি মেটেলি ব্লকের দক্ষিণ ধুপঝোরা ডাঙ্গাধুরা এলাকার। ঘটনায় সমগ্র এলাকায় আতঙ্ক তৈরি হয়েছে।

জানা যায়, শনিবার রাত প্রায় আড়াই টা নাগাদ সংলগ্ন গরুমারা জঙ্গল থেকে একটি বড়ো বুনো হাতি চলে আসে ওই এলাকায়। এলাকার নজরুল ইসলামের গালামাল দোকানের দেওয়াল ভেঙে দিয়ে দোকানের খাদ্যদ্রব্য সাবার করে। পাশের মেহবুব হোসেনের গালামাল দোকানের সাটারও ভেঙে দেয়। মফিজুল হক, নূর আলম ও সুবোধ রায়ের ঘরেরও আংশিক ক্ষতি করে। রবিবার সকালে ঘটনার তদন্ত করার জন্য এলাকায় ধুপঝোরা বিটের বনকর্মীরা গেলে তাদের দীর্ঘক্ষণ আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখানো হয়। ক্ষতিগ্রস্ত বাসিন্দারা যাবতীয় ক্ষতির ক্ষতিপূরণ দাবি করেছেন।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগেও ওই এলাকার অন্য একটি গালামাল দোকানে তান্ডব চালায় হাতি। একের পর এক হাতির হানায় রীতিমতো আতঙ্কিত ওই এলাকার জনগণ। এদিন বনকর্মীদের আটকে রাখার খবর পেয়ে এলাকায় যায় মেটেলি থানার পুলিশ। বনদপ্তর সূত্রে জানা যায়, সরকারি নিয়মে ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।