চার দফা দাবি নিয়ে পৌর প্রশাসকের কাছে ডেপুটেশন পৌরসভার অস্থায়ী শ্রমিক সংগঠনের

15

আবদুল হাই, বাঁকুড়াঃ বাঁকুড়া জেলার সোনামুখী পৌরসভার অস্থায়ী শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার সোনামুখী পৌরসভার পৌর প্রশাসককে একটি ডেপুটেশন প্রদান করে। জানা যায়, দীর্ঘ প্রায় চার বছর ধরে তাদেরকে বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে সে কারণেই বৃহস্পতিবার চার দফা দাবি নিয়ে পৌর প্রশাসককে ডেপুটেশন দিলেন তারা।

মূলত তাদের দাবী গুলো হল, বাজার মূল্যের মূল্যায়নে বেতন বৃদ্ধি, সময় মতো বেতন প্রদান, বকেয়া ইপিএফ আপটুডেট ও প্রতিটি কর্মচারীর আপটুডেট ইপিএফ পাসবুক প্রদান করতে হবে, অবশিষ্ট কর্মচারীদের ইপিএফ এর আওতায় আনতে হবে।

এদিন প্রথমে সোনামুখী পৌরসভা প্রাঙ্গণে অস্থায়ী শ্রমিকদের নিয়ে একটি সভার আয়োজন করা হয় এবং সেখানেই নিজেদের দাবি আদায় প্রসঙ্গে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের নেতৃত্বরা। পরে পনেরো জনের একটি প্রতিনিধিদল পৌর প্রশাসকের হাতে তাদের দাবি-দাওয়া সম্বলিত স্মারকলিপি তুলে দেন।

সোনামুখী পৌরসভার অস্থায়ী শ্রমিক সংগঠনের সদস্যদের দাবি, যারা দিন-রাত ধরে সাধারণ মানুষের স্বার্থে পরিশ্রম করে আসছেন অথচ তাদের বেতন যৎসামান্য। সেই মানুষগুলো দীর্ঘদিন ধরে এভাবে বঞ্চিত হচ্ছেন কিন্তু তারপরেও হুঁশ ফিরছে না পৌরসভা কর্তৃপক্ষের। বৃহস্পতিবার সোনামুখী পৌরসভার অস্থায়ী কর্মচারীদের এই ডেপুটেশন কর্মসূচির পর সোনামুখী পৌর কর্তৃপক্ষের হুশ ফিরবে কিনা সেই আশাতেই দিন গুনছেন সোনামুখী পৌরসভার প্রায় ৩৫০ জন অস্থায়ী কর্মচারী।

সোনামুখী পৌরসভার অস্থায়ী শ্রমিক সংগঠনের এক সদস্য রঘুনাথ ভট্টাচার্য বলেন, ‘আমরা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল করি। আমাদের যে সমস্যা গুলি রয়েছে পৌর প্রশাসকের কাছে অনুরোধ করছি সেই সমস্যাগুলো দ্রুত সমাধান করুন।’

অন্যদিকে, সোনামুখী পৌরসভার পৌর প্রশাসক তপনজ্যোতি চট্টোপাধ্যায় শ্রমিকদের দাবিকে সমর্থন করেন এবং বলেন, আগামী দিনে দ্রুত সমস্যার সমাধান করা হবে বলেও তিনি আশ্বাস দিয়েছেন।

বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলার আইএনটিটিইউসি এর সভাপতি সোমনাথ মুখার্জী জানান, সোনামুখী পৌরসভার সুযোগ্য পৌর প্রশাসক তপন জ্যোতি চট্টোপাধ্যায়ের কাছে আমরা আমাদের দাবি জানিয়েছি এবং তিনি আমাদের সমস্ত দাবি মেনে নিয়েছেন। আগামী জানুয়ারি মাস থেকে তা কার্যকর হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।