ওপিনিয়ন পোল অনুযায়ী: দিল্লির মসনদে ফের ফিরছেন কেজরিওয়াল!

1040

ওয়েব ডেস্ক, ৭ জানুয়ারিঃ গতকাল দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।৭০ আসনের দিল্লি বিধানসভা নির্বাচন হবে ৮ ফেব্রুয়ারি।১১ ফেব্রুয়ারি ভোট গণনা এবং ফলাফল ঘোষণা হবে। প্রসঙ্গত, ২২ ফেব্রুয়ারি মেয়াদ শেষ হচ্ছে বর্তমান দিল্লি বিধানসভার। আর এই নির্ঘন্ট ঘোষণার পরই ওপিনিয়ন পোল অনুযায়ী আবার দিল্লির মসনদে হেসেখেলে ফিরতে চলেছেন অরবিন্দ কেজরিওয়াল। সেইসঙ্গে কার্যত ধুয়েমুছে যেতে পারে বিজেপি।

এবিপি সি ভোটার সমীক্ষা অনুযায়ী, ৭০ আসনের দিল্লি বিধানসভায় ৫৯টি আসন পেতে পারেন অরবিন্দ কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি। বিজেপি পেতে পারে বড়জোর ৮টি আসন, আর কংগ্রেস পেতে পারে সর্বোচ্চ ৩টি আসন।

শুধু তাই নয়, গতবারের থেকে প্রাপ্ত ভোট বাড়তে চলেছে আপের। গতবার ৫৪ শতাংশ ভোট পেয়েছিল আপ। এবার তা বেড়ে হতে পারে ৫৫ শতাংশ। বিজেপির ভোট কমতে পারে অনেকটাই। গতবার ৩২ শতাংশ ভোট পেলেও এবার তা কমে আসতে পারে ২৬ শতাংশে। ভোট কমতে পারে কংগ্রেসেরও। গতবার ৯ শতাংশ ভোট পেলেও এবার তারা পেতে পারে ৫ শতাংশ।

মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে দিল্লিবাসীর দ্বিতীয় পছন্দ বিজেপি নেতা হর্ষ বর্ধন এবং জনপ্রিয়তার নিরিখে তৃতীয় স্থানে রয়েছেন কংগ্রেসের অজয় মাকেন। আর যিনি দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্নে বিভোর সেই দিল্লি বিজেপির সভাপতি মনোজ তিওয়ারিকে মুখ্যমন্ত্রী পদে দেখতে চান মাত্র ১ শতাংশ মানুষ। মহারাষ্ট্র ও ঝাড়খণ্ডের ক্ষমতা হাতছাড়া হওয়ার পরে দিল্লির ক্ষমতা দখল করে মুখরক্ষার জন্য মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। কিন্তু দিল্লির ভোটেও মুখরক্ষার চেয়ে মুখ পোড়ার সম্ভাবনাই যে প্রবল জনমত সমীক্ষাতেই তার ইঙ্গিত মিলেছে।