মাকে গলায় ফাঁস দিয়ে খুনের করার অভিযোগ,প্রাক্তন পুলিশ কর্মী বিরুদ্ধে

135

বিশ্বজিৎ মণ্ডল, মালদাঃ নিজের মাকে গলায় ফাঁস দিয়ে খুনের করার অভিযোগ উঠল প্রাক্তন পুলিশ কর্মীর ছেলে ও তার স্ত্রীয়ের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে, রবিবার দুপুরে মানিকচক থানা মথুরাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের পাঠানপাড়া গ্রামে। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। এদিন বিষয়টি জানাজানি হতেই গ্রামবাসীরা প্রাক্তন পুলিশ কর্মীর বাড়ি ঘেরাও করে বিক্ষোভও দেখায়। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে মানিকচক থানার ওসি দেবব্রত চক্রবর্তীর নেতৃত্বে বিশাল পুলিশবাহিনী। পরে তাঁরা গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে।

জানা গেছে, মৃত ওই বৃদ্ধার নাম আমিলা বেওয়া(৯০)। ঘটনায় অভিযোগের তীর তার ছেলে পেশায় প্রাক্তন পুলিশ কর্মী মন্টু খান ও তার স্ত্রী আকত্তরী খাতুন এর বিরুদ্ধে। ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মন্টু খান ও তার স্ত্রীকে পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে যায়। সাথে মৃতদেহ পুলিশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজে পাঠায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বেশ কিছুদিন ধরেই বৃদ্ধ মাকে বাড়িতে খাবার দিয়ছিল না ওই প্রাক্তন পুলিশকর্মী ও তার পরিবার। প্রায়ই বৃদ্ধ মাকে নিয়ে পরিবার অশান্তি লেগে থাকত। আজ পারিবারিক বিবাদ চরমে উঠলে খুন করে ঝুলিয়ে দেয় তার ছেলে ও পরিবার বলে অভিযোগ গ্রামবাসীর। পুলিশের কাছে এরকম অমানবিক ঘটনার সুবিচার দাবি করে এলাকাবাসী। এদিন বিকেল পর্যন্ত পুলিশের কাছে কোন লিখিত অভিযোগ হয়নি।

এই বিষয়ে মানিকচক থানার ওসি দেবব্রত চক্রবর্তী জানায়, পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়। ঘটনায় দুই জন আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তবে ঘটনায় কোন লিখিত অভিযোগ এখনও পর্যন্ত দায়ের হয়নি। অন্যদিকে প্রাক্তন পুলিশকর্মী তথা যার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ সেই মন্টু খানই তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগকে অস্বীকার করেছেন।