দীর্ঘ কয়েকমাস পর পচাগড় গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের দায়িত্ব নিলেন তৃণমূলের উদয় সরকার

12

কাজল রায়, মাথাভাঙ্গাঃ দীর্ঘ কয়েক মাস পর মাথাভাঙ্গা ১ নম্বর ব্লকের পচাগড় গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের পদে দায়িত্ব নিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের উদয় সরকার। সোমবার তৃণমূল কংগ্রেসের ১৫ জন পঞ্চায়েত সদস্যের উপস্থিতিতে সর্বসম্মতিক্রমে ভোটাভুটি ছাড়াই প্রধান নির্বাচিত হন তৃণমূলের উদায় সরকার। এদিন তৃণমূলের একজন এবং বিজেপির দু’জন সহ মোট তিনজন সদস্য অনুপস্থিত ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। এদিন ওই প্রধান নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যাতে কোনোরকম অপ্রীতি কর ঘটনা না ঘটে তারজন্য আগে থেকেই পঁচাগ্রাম পঞ্চায়েতের সামনে প্রচুর পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছিল। যদিও শেষমেষ কঠোর নিরাপত্তার মধ্যে শান্তিপূর্ণভাবেই প্রধান নির্বাচন হয় বলে জানা গেছে।

প্রসঙ্গত, পঞ্চায়েত নির্বাচনে পচাগড় গ্রাম পঞ্চায়েতের মোট ১৮টি আসন ছিল। সেই ১৮টির মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেস ১৬টি আসন পেয়ে বোর্ড দখল করেছিল। অন্যদিকে ২ টি আসন পায় বিজেপি। ওই সময় প্রধান গঠন করেন তৃণমূলের অতুল দাস(প্রধান) এবং উপপ্রধান কবিতা বর্মন। লোকসভা নির্বাচনে কোচবিহার জেলায় তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী পরেশ চন্দ্র অধিকারী বিজেপি প্রার্থী নিশীথ প্রামানিকের কাছে ৫৪ হাজারের বেশি ভোটে জয় লাভ করে। সেই সময় প্রধান অতুল দাস মাথাভাঙ্গা ১নং ব্লকের বিডিও-র কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেন। তার পদত্যাগপত্র গৃহীত হলে পচাগড় গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের পদ শূন্য হয়ে যায়। সোমবার তৃণমূল কংগ্রেসের ১৫ জন পঞ্চায়েত সদস্যের উপস্থিতিতে সর্বসম্মতিক্রমে ভোটাভুটি ছাড়াই প্রধান নির্বাচিত হন তৃণমূলের উদায় সরকার।