কোচবিহারে বাড়ির মধ্যে মধুচক্র চালানোর অভিযোগ বাড়ির মালিকের বিরুদ্ধে, আটক ১

873

কোচবিহার, ১ অক্টোবরঃ বাড়ির মধ্যে মধু চক্র চালানোর অভিযোগ উঠল বাড়ির মালিকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে, কোচবিহার শহরের ১২ নং ওয়ার্ডে। ঘটনায় আটক করা হয়েছে ১ জনকে। জানা গিয়েছে, গতকাল সন্ধ্যা ৮ টা নাগাদ এক টোটো চালক কোচবিহার ১ নং ব্লকের ঘুঘুমারি সংলগ্ন এলাকা থেকে দুই যুবক ও যুবতী কে নিয়ে ১২ নং ওয়ার্ডের একটি বাড়িতে নিয়ে আসে।

এরপরই স্থানীয়  যুবকদের চোখে পড়লে তাঁরা টোটো চালককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। এবং ঘটনার খবর দেওয়া হয় পুলিশকে। ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে কোচবিহার কোতোয়ালি থানার টিএসআই-এর নেতৃত্ব পুলিশ বাহিনী। এবং টোটো চালকে থানায় নিয়ে যায়। যদিও টোটো চালকের অভিযোগ, ঘটনায় জড়িত ওই দুই যুবক ও যুবতী টোটো নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে চম্পট দেয়।

এবিষয়ে স্থানীয়দের অভিযোগ, গতকাল রাত ৮ টা নাগাদ কোচবিহার ১ নং ব্লকের ঘুঘুমারি এলাকা থেকে ২ যুবক ও যুবতীকে নিয়ে ১২ নং ওয়ার্ডের একটি বাড়ির সামনে নিয়ে আসে। এরপরই ওই টোটো চালক কোন এক ব্যক্তিকে ব্যাক্তিকে ফোন করে ওই বাড়িতে নামিয়ে দেয়।

এরপরই পুরো ঘটনাটি স্থানীয়দের নজরে আসতেই তাঁরা ওই টোটো চালককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে। তাঁদের আরও অভিযোগ, প্রায় দু-মাস থেকে সন্ধ্যার পর ওই বাড়িতে কিছু যুবক যুবতীকে ঢুকতে দেখা যায়। তাঁদের কাছে প্রমান না থাকায় তাঁরা আটক করতে পারেনি। তবে গতকাল তাঁরা হাতানাতে ধরেছে বলে জানা গিয়েছে।

এবিষয়ে, স্থানীয় বাসিন্দা রত্না ঘোষ ও সুব্রত গুপ্ত জানিয়েছেন, ওই বাড়িতে কাজ করতে যে মহিলা যেত সেই মহিলা এই খবর আমাদের দিয়েছে। তাঁদের আরও অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে ওই বাড়িতে এক টোটো চালক ভাঁড়া থাকত। সে প্রতিদিনই ওই বাড়িতে কিছু যুবক যুবতীকে নিয়ে এসে রুমে ঢুকিয়ে বাইরে দিয়ে তালা ঝুলিয়ে দিত। পড়ে আবার ২-৩ ঘন্টা পড়ে সে তালা খুলে দিত। যদিও স্থানীয়দের বক্তব্য অনুযায়ী, আর আগেও অনেক অভিযোগ উঠেছে বাড়ির মালিকের বিরুদ্ধে।

বাড়ির মালিকের থেকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, আমি এবিষয়ে কিছু জানি না। যে সব ছেলে মেয়েরা বাড়িতে আসতো তাঁরা আমার বাড়ির পিছনে যে ব্যক্তি ভাঁড়া থাকত তাঁরা বাড়িতে যেত। তবে কিন্তু বাড়ির মালিককে আজ সমস্ত রকম কাগজপত্র নিয়ে থানায় ডাকা হয়েছে।