সহকামী ছিলেন বীর সাভারকার ও নাথুরাম গডসে, দাবী কংগ্রেস পুস্তিকায়

153

ওয়েব ডেস্ক, ৩ জানুয়ারি: বীর সাভারকারের সাথে দৈহিক সম্পর্ক ছিল নাথুরাম গডসের। এমনটাই বলা হয়েছে আরএসএস-এর বিষয়ে মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেসের প্রকাশিত এক পুস্তিকাতে। মধ্যপ্রদেশ কংগ্রেস রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের বিষয়ে একটি বিতর্কিত পুস্তিকায় দাবি করেছে যে হিন্দু মহাসভার সহ-প্রতিষ্ঠাতা বিনায়ক দামোদর সাভারকর মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসের সাথে শারীরিক সম্পর্কে আবদ্ধ হয়েছিলেন।

বীর সাভারকর কতটা সাহসী ছিলেন এই নামাঙ্কিত একটি পুস্তিকা মধ্যপ্রদেশের ভোপালে সর্বভারতীয় কংগ্রেস সেবা দলের প্রশিক্ষণ শিবিরে বিতরণ করা হয়েছিল বলে অভিযোগ। সেই পুস্তিকাতেই সাভারকারকে ঘিরে বিভিন্ন ঘটনা, প্রশ্ন ও বিতর্ক সম্পর্কে উল্লেখ করে একথা বলা হয়েছে। ডমিনিক ল্যাপিয়ের এবং ল্যারি কলিন্সের ‘ফ্রিডম অ্যাট মিডনাইট’-এ একটি ঘটনার কথা উল্লেখ করে কংগ্রেসের পুস্তিকাটি বলেছে, “ব্রহ্মচর্য গ্রহণের আগে নাথুরাম গডসের শারীরিক সম্পর্কের একমাত্র উল্লেখ পাওয়া যায়। আর তাঁর সমকামী সম্পর্কের অংশীদার ছিলেন বীর সাভারকর।”

পুস্তিকাটির লেখনীতে আরএসএস এবং হিন্দু মহাসভার সহ-প্রতিষ্ঠাতা বীর সাভারকার সম্পর্কিত কিছু প্রশ্নের উত্তর দেওয়া নিয়ে একটি বড়সড় বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। প্রশ্ন ছিল, “সাভারকার কি তবে হিন্দুদের উৎসাহ দিয়েছিলেন সংখ্যালঘু মহিলাদের ধর্ষণ করতে?” এবং এই পুস্তিকায় সেই প্রশ্নের উত্তর হিসাবে বলা হয়েছে, ‘হ্যাঁ’। আরও পুস্তিকাটিতে দাবি করা হয়েছে যে সাভারকর তাঁর ১২ বছর বয়সে একটি মসজিদে পাথর ছুঁড়েছিলেন। পুস্তিকাটিতে আরএসএসকে একটি “নাজি এবং ফ্যাসিবাদী” সংগঠন হিসাবে বর্ণনা করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, এটি হিটলারের নাজিবাদ এবং মুসোলিনির ফ্যাসিবাদ থেকে অনুপ্রেরণা নিয়েছে বলেও দাবি করা হয়েছে।