বাংলাদেশ যাওয়ার ভিসা না পাওয়ায় ক্ষুব্ধ রাজ্যের মন্ত্রী

343

ওয়েব ডেস্ক, ২৬ ডিসেম্বরঃ সিলেট মাদ্রাসার একটি অনুষ্ঠানে যাওয়ার আমন্ত্রণ পেয়েছেন, হাতে রয়েছে কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের অনুমতি, তবু বাংলাদেশ যাওয়ার ভিসা পেলেন না, এমনটাই অভিযোগ রাজ্যের গ্রন্থাগারমন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরীর।  

এবিষয়ে সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী জানান, যে বৃহস্পতিবারেই তাঁর বাংলাদেশ যাওয়ার কথা ছিল। সেই মতই ১০ দিন আগে ভিসার জন্য আবেদনও করেছিলেন। এমনকি টিকিট ও বুক করা হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু আচমকাই কোন কারণ ছাড়াই ভিসা বাতিল করে দেওয়া হয়। মন্ত্রী বলেন, “একজন মন্ত্রী হিসেবে কেন্দ্র এবং রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছ থেকে বিদেশে যাওয়ার অনুমতিপত্র নিয়েছিলাম। আমি নো অবজেকশন সার্টিফিকেট ও নিয়েছিলাম। এখন জানতে পারলাম বাংলাদেশ ডেপুটি হাইকমিশনের তরফে আমার ভিসা বাতিল করা হয়েছে। দু’দেশের মধ্যে যে সুসম্পর্ক রয়েছে সেখানে এটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। আমি মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এই বিষয়টি তুলে ধরব।”

কিন্তু কেন তা দেওয়া হল না, তা স্পষ্ট নয় মন্ত্রীর কাছে। তিনি নিজেও জানেন না কেন এই ভিসার আবেদন মঞ্জুর করা হল না। তবে এই নিয়ে বেশি জলঘোলা করতে চান না মন্ত্রী নিজেও। কিন্তু বাংলাদেশ সরকারের এই সিদ্ধান্তে সংশ্লিষ্ট মহলে প্রশ্ন উঠছে তাহলে কি নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন ও তার প্রভাব নিয়ে বাংলাদেশ সরকার চিন্তিত। সেই কারণেই কি ভারতের একটি অঙ্গরাজ্যের মন্ত্রীকেও ভিসা দেওয়া হল না।

সূত্রে জানা গিয়েছে, ভিসা খারিজ হওয়ার কোনও নির্দিষ্ট কারণ নেই। মন্ত্রী হাতে-হাতে ভিসা চেয়েছেন। বুধবার বড়দিনের ছুটি। বৃহস্পতিবার ওঁনার বাংলাদেশে যাওয়ার কথা থাকলেও কয়েকদিন আগেই ভিসার আবেদন করা উচিত ছিল। কিন্তু সেটা সিদ্দিকুল্লা সাহেবের তরফে করা হয়নি। মাত্র একদিন আগে তিনি ভিসার আবেদন করেছেন। সেই কারণেই তড়িঘড়ি এভাবে আবেদন মঞ্জুর করা সম্ভব নয়। যদিও সরকারিভাবে এই নিয়ে বাংলাদেশ উপ হাইকমিশনের তরফে কোন বিবৃতি দেওয়া হয়নি।