২৬০ গ্রাম গহনা পরিয়ে শ্যামা মাকে বরণ করলেন অনুব্রত

72

পার্থ দে, বীরভূমঃ জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের উদ্যোগে প্রতিবছর তৃণমূলের দলীয় কার্যালয়ে কালীপূজার আয়োজন করা হয়। এবছরও তার ব্যতিক্রম হয়নি, শনিবার বীরভূম জেলা কমিটির উদ্যোগে এই পূজা হয়। অনুব্রতবাবু প্রায় ৪০ বছর ধরে এই কালীপূজা করে আসছেন। সুতরাং তিনি ধুমধাম সহকারে কালীপুজোর আয়োজন করেছেন । সাধারণ মানুষের জন্য এই মন্দির খুলে দেওয়া হয় কালীপুজোতে।

যাতে ভক্তরা এখানে পুজো দিতে পারেন সুষ্ঠুভাবে এবং প্রতিমা দর্শন করেন। ধর্মীয় আচরণে সাথে সাথে এই পুজো গুলি একটা সামাজিক অনুষ্ঠান ও মিলনক্ষেত্র গড়ে তোলে। এই পার্টি অফিসের পুজোতে হিন্দু-মুসলিম সকল ধর্মীয় মানুষ এখানে আসেন। এই সংস্কৃতি আমাদের পশ্চিমবাংলায় আছে। সেই ভাবনাকে মাথায় রেখে জাঁকজমক করে কালিমাতার পুজোর আয়োজন করেছে। তার সাথে সাথে পুজো শেষে মানুষের প্রসাদ দেবার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তাই আজ অনুব্রত মণ্ডলের উপস্থিতিতে প্রায় ২৬০ গ্রাম সোনার গহনা পড়ানো হলো দেবীকে।

মায়ের গহনার পাশে বসে অনুব্রত

এবছর অনুব্রত মন্ডলের মারা যাওয়ায় তিনি মন্দিরের বাইরে থেকে নিজের হাতে সোনার গয়না গুলি তুলে। এদিন তিনি এবং মন্ত্রীদের সহযোগিতায় দেবীকে অলঙ্কারগুলি পড়িয়ে দেন। তার সঙ্গে সঙ্গে তিনি জানান প্রতিবছর আমি নিজের হাতে মায়ের মূর্তি গহনা পরাই। এবছর আমার মা মারা যাওয়ার ফলে আমি বাইরে বসে গহনা পড়ানোর  দেখছি এবং তার সাথে সাথে বীরভূম জেলার প্রতিটি মানুষকে সহ এলাকায় শান্তি কামনার লক্ষ্যে। শুধু তাই নয় তিনি মায়ের কাছে আশীর্বাদ চান।