বাজেটে কোন জিনিস সস্তা হল? আর কোন জিনিস দামি? দেখে নিন একঝলকে

1048

ওয়েব ডেস্ক, ১ ফেব্রুয়ারিঃ দ্বিতীয়বারের জন্যে  বাজেট  পেশ করলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন৷ এদিনের বাজেটে তিনি জানিয়েছেন বৃদ্ধির হার বেড়েছে ৷ ২০১৪ থেকে ২০১৯ সাল অবধি বৃদ্ধির হার ছিল গড়ে ৭.৪% ৷ ২৭ লক্ষ মানুষ দারিদ্রসীমার বাইরে এসেছেন বলে দাবি অর্থমন্ত্রীর৷বিশ্বের পঞ্চম বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ ভারত৷ সরকারের ঋণের বোঝাও কমেছে বলে দাবি নির্মলা সীতারমনের।

একনজরে নির্মলা সীতারমনের ভাষণ:

৫ লাখ থেকে ৭.৫ লাখ আয়ে ১০ শতাংশ কর

৭.৫ লাখ থেকে ১০ লাখ আয়ে কর কমে ১৫ শতাংশ

১০-১২.৫ লাখ আয়ে কর কমে ২০ শতাংশ

১২.৫-১৫ লাখ আয়ে কর কমে ২৫ শতাংশ

১৫ লাখ টাকা আয়ের ঊর্ধ্বে আবার অপরিবর্তিত রইল আয়করের হার।আয়করের হার ৩০ শতাংশ

আয়কর আরও সহজ করা হবে বাজেটে ঘোষণা অর্থমন্ত্রীর।

পাশাপাশি এবারের বাজেটে যেমন তিনি কর ছাড়ের কথা ঘোষণা করেছেন।ঠিক তেমনই এই বাজেট ঘোষণায় বেশ কিছু জিনিসের দাম সস্তা হতে চলেছে।বেশ কিছু জিনিস দামি হতে চলেছে।একদিকে যখন সিগারেট দামি হয়েছে।সেই জায়গায় চিনি সস্তা হয়েছে।

বাজেটে প্রস্তাবিত নীতির জেরে যেসব জিনিসের দাম বাড়ছে তারমধ্যে রয়েছে, বিদেশি জুতো, বিদেশি আসবাবপত্র, গাড়ির যন্ত্রাংশ, বিদেশ থেকে আনা চিকিৎসার কিছু সরঞ্জাম, সিগারেট সহ অন্যান্য তামাকজাত দ্রব্য। তবে বিড়ির দাম একই থাকছে। ফলে যাঁরা বিড়ি খান, অর্থাৎ দেশের তথাকথিত নিম্নবিত্ত ও দরিদ্র শ্রেণি, তাঁদের বিড়ি সেবনে কোপ দিল না সরকার।

যেসব জিনিসের দাম কমতে চলেছে তার মধ্যে রয়েছে নিউজ প্রিন্ট, মোবাইলের যন্ত্রাংশ, বৈদ্যুতিক গাড়ি, হাল্কা কোটেড কাগজ সহ বেশ কিছু জিনিসের। এদিকে এদিন অর্থমন্ত্রী জানান মোবাইল এবার ভারতেই তৈরিতে উদ্যোগ নেবে সরকার। মোবাইল ফোন যাতে ভারতেই তৈরি করা যায় সে বিষয়ে জোর দেন তিনি।