হাতির হাত থেকে গ্রামকে বাঁচাতে ফিন্সিং প্রকল্প চালু করল বক্সা টাইগার রিজার্ভ

64

আলিপুরদুয়ার, ১৮ অক্টোবরঃ বক্সা টাইগার রিজার্ভের সাউথ রায়ডাক রেঞ্জের ছোট চৌকিরবস এলাকায় আট কিলোমিটার জায়গাজুড়ে সৌর বিদ্যুতের মাধ্যমে ফেন্সিং-এর ব্যবস্থা করল বনদপ্তর । বনদপ্তরের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন এলাকাবাসীরা। আলিপুরদুয়ার ২ নং ব্লকের ছোট চৌকিরবস গ্রাম বরাবরই কৃষি প্রধান এলাকা।

দিনের পর দিন হাতি এসে ক্ষতিগ্রস্ত করছে ওই এলাকার গোটা গ্রাম। এলাকায় সন্ধ্যা নামতেই জঙ্গল থেকে নেমে আসে হাতির দল। এর ফলে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকার কৃষিজীবী লোকেরা। তাই হাতির উপদ্রব থেকে বাঁচতে দীর্ঘদিন যাবৎ এলাকাবাসী বনদপ্তরের কাছে বিভিন্নভাবে অভিযোগ জানিয়ে আসছেন। দীর্ঘ আন্দোলন এর ফলে বনদপ্তর অবশেষে কৃষিজীবী মানুষের কথা মাথায় রেখে ফেন্সিং এর কাজে হাতদিল ।

সাউথ রায়ডাক রেঞ্জের বনদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, ২০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে প্রায় আট  কিলোমিটার এলাকাজুড়ে ফেন্সিং করে বনদপ্তর। এই ফেন্সিং বিদ্যুৎ সংযোগ নয় সৌর শক্তির মাধ্যমেই ফেন্সিং চলবে। যদিও রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব এলাকাবাসীর ।

চৌকিরবস যৌথ বন পরিচালন কমিটির সভাপতি মতিলাল দেবনাথ জানান,  প্রায় এক মাস ধরে এই কাজ চলছে। এক মাস কাজ করার পর আট কিলোমিটার  জায়গা সীমানা করা হয়েছে হাতির নিয়ন্ত্রণ করার জন্য। এই ফিন্সিং-এর মাধ্যমে হাতি আসার চেষ্টা করলে সৌরতাপের বিদ্যুতের ফলে সে বাধা প্রাপ্ত হয়ে আবার বনে ফিরে যাবে ।

এদিকে বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের ক্ষেত্র অধিকর্তা শুভঙ্কর সেনগুপ্ত বলেন, সাউথ রায়ডাক রেঞ্জের ছোট চৌকিরবস আট কিলোমিটার ও নারার থলি এলাকায় তিন কিলোমিটার  ফেন্সিং এর কাজ হয়েছে । সাধারন মানুষ যারা কৃষি কাজের সাথে যুক্ত তারা প্রচন্ড উপকৃত হয়েছেন । হাতির উপদ্রব থেকে রক্ষা পেয়েছেন । আগামী দিনে এমন আরো কিছু এলাকাতে এই ফেন্সিং এর কাজ হবে ।