অবৈধ বালি পাচার কারির হাতে আক্রান্ত বিডিও ও বিএলআরও, গ্রেফতার ২

10

নরেশ ভকত, বাঁকুড়াঃ গতকাল রাতে বাঁকুড়ার মেজিয়া থানার ভাড়রা গ্রামে বিডিও বিএলআরও অবৈধ বালি পাচার রুখতে গিয়ে আক্রান্ত হল। এই ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে মেজিয়া থানার পুলিশ দুজনকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতার করার পর  ওই দুজনকে আজ বাঁকুড়া জেলা আদালতে পাঠানো হয়েছে।

জানা গেছে, গতকাল রাত নটা নাগাদ বাঁকুড়ার মেজিয়া ব্লক প্রশাসন খবর পায় যে, প্রশাসনিক নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও দামোদর নদের রামচন্দ্রপুর তেলেন্ডা গ্রামের সংলগ্ন ঘাট থেকে অবৈধ ভাবে বালি তুলে একাধিক ট্রাক্টরে করে পাচার করা হচ্ছে। খবর পেয়ে মেজিয়া ব্লকের বিডিও অনিরুদ্ধ ব্যানার্জী ও বিএলআরও অমিত দাস দু-জনই অবৈধ বালি পাচার রুখতে হানা দেন।

মেজিয়া ব্লকের ভাড়রা গ্রামের কাছে বালি বোঝাই বেশ কয়েকটি ট্রাক্টর আটক করেন বিডিও ও বিএলআরও এরপরই অবৈধ বালি কারবারের সঙ্গে যুক্ত একদল লোক বিডিও ও বিএলআরও কে ব্যাপক হেনস্থা করে বলে অভিযোগ। বিডিও ও বিএলআরও কে হেনস্থা করার সময় ট্রাক্টর গুলি পালিয়ে যায়। দীর্ঘক্ষণ ধরে বালি কারবারিদের হাতে ঘেরাও হয়ে থাকার পর অবশেষে মুক্তি পান বিডিও ও বিএলআরও।

এদিকে প্রশাসনিক আধিকারিকদের হেনস্থা করা ও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে গতকাল রাতেই বাঁকুড়ার মেজিয়া থানার ডাং মেজিয়া গ্রামের কর্ন মন্ডল ও নাগরডাঙ্গা গ্রামের আশিষ মহান্ত নামের দুজনকে গ্রেফতার করে মেজিয়া থানার পুলিশ। এই ঘটনায় আরও কে কে যুক্ত আছে তা খতিয়ে দেখছে মেজিয়া থানার পুলিশ।