কোচবিহারে অভিনন্দন যাত্রা করে ফেরার পথে তৃনমূল কর্মীকে মারধর করার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে

1786

দেওয়ানহাট, ৩০ ডিসেম্বরঃ কোচবিহারে অভিনন্দন যাত্রা করে ফেরার পথে তৃনমূল কর্মীকে মারধর করার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে। ওই ঘটনায় গুরুতর আহত হয় এক তৃনমূল কর্মী। ঘটনাটি ঘটেছে দেওয়ান হাট চৌপথী এলাকায়। ওই ঘটনায় ব্যাপক উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। ওই ঘটনার খবর পেয়ে দেওয়ানহাট পুলিশ ফাঁড়ির থেকে পুলিশ ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। আহত অবস্থায় ওই তৃনমূল কর্মীকে উদ্ধার করে দেওয়ানহাট প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভরতি করা হয়। ওই ঘটনায় বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মীর বিরুদ্ধে দেওয়ানহাট পুলিশ ফাঁড়িতে অভিযোগ দায়ের করা হয়। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, আক্রান্ত ওই তৃনমূল কর্মীর নাম বুলবুল হোসেন। তার বাড়ি দেওয়ানহাট বালাশি এলাকায়। জানা গেছে, আজ বিকেলে ওই তৃনমূল কর্মী বাড়ি থেকে বাজার যাওয়ার সময় দেওয়ানহাট বাজার চৌপথী এলাকায় দাঁড়িয়েছিল। সেই সময় বিজেপি কর্মীরা দেওয়ানহাটে ওই কর্মীকে দেখতে পায়। তৎক্ষণাৎ টেম্পু থেকে নেমে পরিমল বর্মণ, কার্ত্তিক বর্মণ গৌতম সাহার নেতৃত্বে ওই তৃনমূল কর্মীকে মারধোর করে বলে অভিযোগ। পরে তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে দেওয়ানহাট প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভরতি করা হয়। পরে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে তাকে কোচবিহারের একটি বেসরকারি নার্সিং হোমে স্থানান্তরিত করা হয়। যদিও ওই অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপি নেতৃত্বরা।

স্থানীয় তৃনমূল নেতা তাপস কুমার দে জানান, আমাদের তৃনমূল কর্মী বুলবুল হোসেন বাড়ি থেকে দেওয়ানহাট বাজার আসছিল। বাজারে এসে চৌপথী এলাকায় দাঁড়িয়ে ছিল সেই সময় কোচবিহার থেকে মিছিল করে ফেরার পথে তাকে দেখতে পেয়ে গাড়ি থেকে নেমে ওই তৃনমূল কর্মীকে রাস্তায় ফেলে মারধোর করে। ওই ঘটনায় গুরুতর আহত অবস্থায় দেওয়ানহাট প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভরতি করা হয়। বিজেপি কর্মীরা লোকসভা নির্বাচনের পর থেকে এলাকায় বিভিন্ন ভাবে সন্ত্রাস করে চলেছে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পুলিশ যথাযত ব্যবস্থা গ্রহন না করলে আমরা বৃহত্তর আন্দোলনে নামব।

যদিও এবিষয়ে কোচবিহার জেলার বিজেপির সাধারন সম্পাদক সঞ্জয় চক্রবর্তী বলেন, কোচবিহারে অভিনন্দন যাত্রা করে ফেরার পথে দেওয়ানহাট এলাকায় বিজেপি কর্মীদের গাড়ি আটকে তৃনমূল কর্মীরা মারধোর করে। এমনি কি অভিনন্দন যাত্রায় আসা বেশ কয়েকটি ছোট গাড়ি ভাঙচুর করে বলে অভিযোগ। ওই ঘটনায় তৃনমূল তাদের দোষ ঢাকার জন্য বিজেপির নামে বদনাম করছে। পাশাপাশি তিনি আর বলেন, শুধু দেওয়ানহাটে নয়, সিতাই সাগারদিঘির ঘাটে, বলরামপুরে, সাতমাইল, শুটকাবাড়ি, শিতলখুঁচি এলাকার জটামারি এবং দিনহাটার কার্যকর্তা সুদেব কর্মকারের গাড়িতেও হামলা চালায় তৃনমূল কর্মীরা। আজ বিজেপির অভিনন্দন যাত্রা লোক জন দেখে তাদের পায়ের তোলার মাটি সরে গেছে। সেই কারনে তারা এলাকায় এলাকায় সন্ত্রাস চালাচ্ছে।