‘কাগজ আমরা লুকবো না’ এই আবেদন নিয়ে বাংলার ঘরে ঘরে যাবেন বিজেপি কর্মীরাঃ দিলীপ ঘোষ

139

কোচবিহার, ২২ জানুয়ারিঃ বাংলার বৃদ্ধিজীবীদের একাংশের আবেদনের পাল্টা হিসেবে কাগজ আমরা লুকবো না এই শ্লোগানকে সামনে রেখে এবার প্রচারে নামছে ভারতীয় জনতা পার্টি। এনআরসি ও ক্যা নিয়ে গোটা দেশ জুড়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। প্রচার পাল্টা প্রচার,  বিভ্রান্ত সাধারণ মানুষও। এই অবস্থায় বাংলার বৃদ্ধিজীবীদের একাংশ ‘কাগজ আমরা দেখাবো না’ এই আবেদন নিয়ে পথে নেমেছে। এই নিয়ে একাধিক বার বিজেপির রাজ্য সভাপতি এর বিরোধিতা করে বিবৃতি দিয়েছেন। এ প্রসঙ্গে বুধবার কোচবিহারে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, যাদের কাগজ সঠিক রয়েছে তাঁরা কাগজ দেখাবেন না কেন? তাহলে বুঝতে হবে অনেকের কাগজ ঠিক নেই। আমরা গোটা রাজ্য জুড়ে ‘কাগজ আমরা লুকবো না’ এই আবেদন নিয়ে প্রচার অভিযানে নামবো।

সিএএ নিয়ে মানুষের মধ্যে যে কিছুটা বিভ্রান্তি রয়েছে এ কথা মেনে নিয়ে দিলীপ বাবু বলেন, গোটা রাজ্যেই সিএএ- নিয়ে মানুষের ঘরে ঘরে যাবে বিজেপি কর্মীরা। এদিকে কোচবিহারে বেশ কিছু সংগঠন ভূমিপত্র ঐক্য মঞ্চ, কেপিপি, গ্রেটার কোচবিহারের মত সংগঠন গুলি ‘ইয়েস এনআরসি, নো ক্যা’ নিয়ে আন্দোলন শুরু করেছে। এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন,  কিছু ভুল ধরনা মানুষের মধ্যে এখনও রয়েছে, আমরা তা দূর করতে সচেষ্ট হবো।  

এদিন সকালে কুয়াশাছন্ন পরিবেশও রাজার শহর কোচবিহারে প্রাতঃভ্রমণ করেন দিলীপ বাবু। সেখানে তিনি সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলেন। একই সাথে কোচবিহার দেবীবাড়ি এলাকায় বেশ কিছু দলীয় কর্মীর বাড়িতে যান সেখানে চা খান এবং ওই পরিবার গুলির খোজ খবর নেন। জেলার বিজেপির প্রবীণ নেতা হরিপদ পালের সাথে তিনি দেখা করেন। এরপর পুন্ডিবাড়িতে অবস্থিত উত্তরবঙ্গ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারী সংগঠন কর্মচারী যৌথ মঞ্চ, পশ্চিমবঙ্গের একটি কর্মসূচিতে যোগ দেন। এরপর সেখান থেকে আলিপুরদুয়ার জেলার ফালাকাটার উদ্দেশ্যে রওনা দেন।