বিজেপি নেতা খুনের প্রতিবাদে রবিবার ১২ ঘণ্টার বনধ ইসলামপুরে

0
26

খবরিয়া ২৪ নিউজ ডেস্ক, ২৩ জুলাই, শিলিগুড়িঃ উত্তর দিনাজপুরের ইসলামপুরে এক বিজেপি নেতাকে খুন করার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করে রাজ্যের শাসকদল জানিয়েছে, বিজেপি নেতার মৃত্যুর সঙ্গে রাজনীতির কোনও সম্পর্ক নেই। রবিবার ইসলামপুর শহরে ১২ ঘণ্টার বনধের ডাক দিয়েছে বিজেপি।

শনিবার বিজেপি যুব মোর্চার ইসলামপুর মণ্ডলের সম্পাদক অসীম সাহা ছুরিকাহত হন। এক যুবকের বিরুদ্ধে এলোপাথাড়ি ছুরি চালানোর অভিযোগ ওঠে। গুরুতর জখম অবস্থায় ঘটনার পরই অসীমকে প্রথমে ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতাল, পরে সেখান থেকে শিলিগুড়ির একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। শিলিগুড়ির বেসরকারি হাসপাতালেই মৃত্যু হয় অসীমের। অভিযুক্ত যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শুরু হয়েছে তদন্তও। আজ মৃতদেহ ময়নাতদন্তের পর পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। অসীম সাহার মামা রতন সাহা জানান, অভিযুক্ত সাহিল বেশ কিছুদিন ধরে অসীমের কাছে তোলার টাকা চাইছিল।

গতকাল সকালে টাকা চাইতে এল দুজনের মধ্যে শুরু হয় বাদানুবাদ সেই সময় সাহিল চাকু বার করে এলোপাথাড়ি ভাবে অসীম কে মারতে থাকে। অসীম যুব মোর্চার সাথে যুক্ত থাকলেও অভিযুক্ত সাহিল কোন রাজনৈতিক দলের সাথে যুক্ত রয়েছে কিনা তিনি জানেন না।

বেসরকারি হাসপাতালে অসীম সাহার পরিবারের সাথে দেখা করে সমবেদনা জানান যু্ব মোর্চার প্রদেশ সভাপতি ডাঃ ইন্দ্রনীল খাঁ। তিনি বলেন ঘটনায় রাজ্যের শাসকদলের হাত রয়েছে বলে অভিযোগ করেন। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “বাইরে থেকে এক যুবক এসে অন্য এক জনের বুকে প্রকাশ্য দিবালোকে চাকু চালিয়ে দেয় কোন সাহসে? এর পিছনে শাসকদলের মদত রয়েছে।”

বিজেপির অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছে তৃণমূল। তৃণমূলের জেলা সভাপতি কানাইয়ালাল আগরওয়াল বলেন, “ব্যবসায়িক কারণেই বাদানুবাদ, আর সেই কারণেই চাকু চালিয়েছে অভিযুক্ত। এখানে কোনও রাজনীতির রং নেই।” তিনি আরও বলেন, “বিজেপি নিজেদের পায়ের তলার মাটি হারিয়ে এখন সব ক্ষেত্রেই রাজনীতি খুঁজে বেড়াচ্ছে। অভিযুক্ত গ্রেপ্তার হয়েছে। আইন আইনের পথে চলবে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here