প্রতারণার অভিযোগ বিজেপি সাংসদ গৌতম গম্ভীরের বিরুদ্ধে! চার্জশিট দাখিল পুলিশের

34

ওয়েব ডেস্ক, ৩০ সেপ্টেম্বরঃ প্রতারণার মামলায় এবার নাম জড়াল দিল্লির বিজেপি সাংসদ গৌতম গম্ভীরের বিরুদ্ধে। দিল্লির একটি আদালতে চলা এই সংক্রান্ত মামলার সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিটে গম্ভীরের নাম ঢুকিয়েছে দিল্লি পুলিশ। পুলিশ সূত্রে খবর, গম্ভীর ছাড়াও এই মামলার আরও অনেকেই যুক্ত রয়েছেন।

জানা গেছে, ২০১১ সালে গাজিয়াবাদের ইন্দ্রপুরমে ফ্ল্যাট কেনার জন্য একটি রিয়েল এস্টেট কোম্পানিকে কয়েক কোটি টাকা দিয়েছিলেন ৫০ জনের বেশি মানুষ। কিন্তু, আজও ফ্ল্যাটের চাবি হাত পাননি তাঁরা। তাই ২০১৬ সালে ওই প্রকল্পের দায়িত্বে থাকা রুদ্র বিল্ডওয়েল রিয়েলটি প্রাইভেট লিমিটেড এবং এইচ ইনফ্রাসিটি প্রাইভেট লিমিটেডের বিরুদ্ধে তাঁরা অভিযোগ দায়ের করেন। এই আবাসন প্রকল্পের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর ও একজন ডিরেক্টর ছিলেন বিজেপি সাংসদ গৌতম গম্ভীর।

চার্জশিটে পুলিশের অভিযোগ, ‘‌২০১৩ সালে ৬ জুনের মধ্যে আবাসন তৈরি হয়ে যাওয়ার কথা ছিল। ক্রেতা ও বিক্রেতাদের মধ্যে এমনটাই চুক্তি হয়েছিল। কিন্তু তারপরেও আবাসন তৈরি হয়নি। উল্টে ক্রেতাদের থেকে আরও টাকা আদায় করার চেষ্টা করে ওই দুই আবাসন নির্মাণ সংস্থা। কিন্তু এই প্রকল্পের অনুমোদন অনেকদিন আগেই বাতিল করে দিয়েছিল প্রশাসন। সেব্যাপারে ক্রেতাদের কিছুই জানানো হয়নি। উল্টে দিনের পর দিন আরও টাকা নেওয়া হয়েছে তাঁদের থেকে।’‌

গৌতম গম্ভীরের পাশাপাশি চার্জশিটে অভিযোগ উঠেছে প্রোমোটার মুকেশ খুরানা, গৌতম মেহরা এবং ববিতা খুরানার বিরুদ্ধে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ভারতীয় সংবিধানের ৪০৬, ৪২০ ও ৩৪ ধারায়। অভিযোগকারীদের বক্তব্য, গৌতম গম্ভীরের নাম ভাঙিয়ে প্রচার চালিয়েছে দুই সংস্থা। যাতে মানুষ আবাসন কেনার ব্যাপারে আরও উৎসাহী হয়।