দলবেঁধে মনোনয়ন জমা দেওয়ার নিদান বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের

95

ওয়েব ডেস্ক, ২৮ অক্টোবরঃ বিধানসভা ভোট শেষ হতে না হতেই বিজেপির লক্ষ্য এবার রাজ্যের পুরভোটের দিকে। আর সেই লক্ষ্যেই এখনই গুটি সাজাতে শুরু করেছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। উপনির্বাচনের প্রাক মুহূর্তেই পুরভোট নিয়ে সুর চড়ালেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। আসন্ন পুরভোটে মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় থেকেই বিজেপি প্রার্থীকে দেওয়া হবে নিরাপত্তা। তৃণমূল বাধা দিলে প্রতিবাদ করবেন সাংসদ, বিধায়করা। এমনই বার্তা দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। তৃণমূলের পাল্টা জবাব, গণতান্ত্রিকভাবে জিতবে দল।

বাংলায় গত ভোটের আগেও ভোটের সময় রাজনৈতিক হিংসা এবং রাজনৈতিক টানাপোড়েনের নিয়ে বারবার প্রশ্ন তুলেছে বিজেপি। এবারও গত বিধানসভা ভোটের প্রসঙ্গ টেনে সুকান্ত মজুমদার বলেছেন, গতবার মনোনয়ন দিতে দেয়নি। এখন সেই বিজেপিও নেই। এখন দলের এখন অনেক সাংসদ ও বিধায়ক রয়েছেন। তৃণমূল যদি ভেবে থাকে সেরকম কিছু করবে তাহলে তারা মুর্খের স্বর্গে বাস করছে। মনোনয়ন পেশে বাধা দিলে লড়াই করবেন তাঁরা। বিধানসভা ভোটের মত পুরভোটে যদি মনোনয়ন পেতে বাধা প্রদান করে শাসকদল তবে সেখানে শক্ত হাতে মোকাবিলা করার পরামর্শ দিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

উত্তরবঙ্গের পাঁচটি পুরসভা দখলের হুঁশিয়ারি দিয়ে, তৃণমূলকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছেন সুকান্ত মজুমদার। সেই সঙ্গে বিজেপির রাজ্য সভাপতি জানিয়েছেন, মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় দলের তরফে প্রার্থীকে দেওয়া হবে নিরাপত্তা। তিনি দল বেঁধে একসঙ্গে বিধায়ক ও সাংসদদের নিয়ে মনোনয়ন পত্র জমা দিতে যাওয়ার নিদানও দিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, তৃনমূল মনোনয়ন পেশে সমস্যা করলে বা বাধা দিলে লড়াই করবেন বিজেপির সাংসদ ও বিধায়কেরা। আসন্ন পুরভোট নিয়েও তৃণমূলকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়েছে বিজেপি। দলের রাজ্য সভাপতি বলেছেন, আমরা এবার উত্তরবঙ্গের পাঁচ পুরসভার পাঁচটাতেই খুব ভালো ফল করব এবং পাঁচটা পুরসভাই দখল করব।