“আগে রাফায়েল থাকলে ভারতে বসেই পাকিস্তানে বোমা ফেলা যেত” : প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং

415

ওয়েব ডেস্ক, ১৬ অক্টোবরঃ ভারতের কাছে আগেই যদি রাফালের মতো অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমান থাকতো তাহলে পাক অধিকৃত বালাকোটে ঢুকে জঙ্গি শিবির হামলা চালানোর কোনও প্রয়োজন পড়তো না, দেশে বসেই পাকিস্তানে বোমা ফেলা যেত। মহারাষ্ট্রের থানেতে বিজেপি প্রার্থী নরেন্দ্র মেহতার হয়ে এক জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে এ কথা বলেন  রাজনাথ সিং।  

পাশাপাশি, বিজয় দশমীর দিন রাফায়েল হাতে পেয়ে ফ্রান্সের মাটিতে ‘শস্ত্র পুজো’ সম্পর্কে বিরোধীদের সমালোচনার জবাব দেন রাজনাথ সিং। তিনি বলেন, আগে থেকে যদি আমাদের কাছে রাফায়েল যুদ্ধবিমান থাকতো তবে আমাদের বালাকোটে ঢুকে এয়ার স্ট্রাইকের দরকারই হত না। ভারতে বসেই আমরা বালাকোটে হামলা করতে পারতাম। রাজনাথ বলেন, যুদ্ধবিমানগুলি রাখা হয়েছে কেবল আত্মরক্ষার জন্যেই, আগ্রাসনের জন্যে নয়।

এরপর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর শাসনকালে  এই সুপারসনিক গতির রাফায়েল বিমানের সঙ্গে তুলনা করে রাজনাথ সিং বলেন, ‘কংগ্রেস এবং এনসিপির শাসনকালে সুপারসনিক গতিতে দেশ নিচে নেমেছিল আর আমাদের সরকার সুপারসনিক গতিতে এগিয়ে চলেছে।’

প্রসঙ্গত, বিজয় দশমীর দিন ফ্রান্স আনুষ্ঠানিকভাবে প্রথম রাফায়েল যুদ্ধবিমানটি রাজনাথ সিংয়ের হাতে তুলে দেয়। চুক্তি অনুযায়ী, ফ্রান্স মোট ৩৬টি রাফায়েল যুদ্ধবিমান সরবরাহ করবে ভারতকে। যুদ্ধবিমানটি গ্রহণ করার পর কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী এই যুদ্ধবিমানে উঠে কিছুটা সময় আকাশে ভ্রমণ করে দেখেন।