মোদী সরকারের বাজেটে ‘হতবাক এবং স্তম্ভিত’ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

321

ওয়েব ডেস্ক, ২ ফেব্রুয়ারিঃ গতকাল ২০২০-২১ অর্থবর্ষের প্রথম বাজেট পেশ করেছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। দেশবাসী যখন আগামী বাজেটে কি কি উপকার হতে পারে তার দিকে মুখিয়ে ছিল তখনই বাজেটে তিনি উল্লেখ করেছেন এলআইসিতে সরকারের শেয়ার বা অংশীদারিত্ব বিক্রি করা হবে। অর্থমন্ত্রীর এই ঘোষণা শুনেই এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সরব হন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দেশের এই সরকারি সংস্থা বেসরকারিকরণ প্রসঙ্গে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রের সমালোচনা করে ট্যুইটে লিখেছেন, “প্রাচীন এবং গর্বের সরকারি সংস্থাগুলিকে নষ্ট করার সিদ্ধান্তে আমি হতবাক এবং স্তম্ভিত। এই সিদ্ধান্তের মধ্যে দিয়ে মানুষের নিরাপত্তা শেষ করে দেওয়া হচ্ছে। এই যুগের কি তাহলে অবসান হতে চলল?” রেল, বিপিসিএল, শিপিং কর্পোরেশন ও কন্টেনার কর্পোরেশন সহ এয়ার ইন্ডিয়ার বেসরকারিকরণের কথা বলতেও ভোলেননি তিনি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পাশাপাশি ডেরেক ও’ব্রায়েন ক্ষোভ উগড়ে লিখেছেন, “কর ছাড়ের তোপ দেবেন না, ভালো করে আইটি ছাড়ের খসড়া পড়ুন, ৭০ থেকে ১০০ শতাংশ শুল্কে ছাড় প্রত্যাহার করা হয়েছে।”

অন্যদিকে, বাজেট প্রসঙ্গে প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর প্রতিক্রিয়া, ‘‘ঐতিহাসিক বলতে সবথেকে লম্বা বাজেট, বাকিটা ফাঁপা। কর্মসংস্থানের কোনও দিশা নেই বাজেটে’। উল্লেখ্য, এদিন বাজেট বক্তৃতায় নিজের রেকর্ডই ভাঙলেন নির্মলা সীতারামন। ২০১৯ এর অন্তর্বর্তী বাজেট ভাষণ ছিল ২ ঘণ্টা ১৭ মিনিটের। এ বছর ভাষণ চলল প্রায় আড়াই ঘণ্টা।