মর্মান্তিক! ভ্যানের চাকায় পিষে দু’টুকরো শিশু, পরে হাসপাতালে মৃত্যু

0
17

খবরিয়া ২৪ নিউজ ডেস্ক, ৯ অগাস্ট, কাটোয়াঃ ভ্যানের চাকায় পিষে দু’টুকরো হয়ে গিয়েছিল ৫ বছরের শিশু। দেহাংশ কুড়িয়ে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পরেও শেষরক্ষা হল না। ৪৫ মিনিট পর মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে শিশুটি। বুধবার বিকেলে পূর্ব বর্ধমান জেলার কাটোয়া থানার অগ্রদ্বীপের ঘটনা।

মৃতের নাম চন্দন হালদার। অগ্রদ্বীপ গোপীনাথ তলার কাছে তার বাড়ি। অগ্রদ্বীপ ঘাট থেকে বেথুয়াডরি রোডে এই দুর্ঘটনা ঘটে।  জানা গিয়েছে, এদিন ঠাকুরমা পারুলদেবীর সঙ্গে প্রতিবেশী একটি বাড়িতে নেমন্তন্ন খেয়ে বাড়ি ফিরছিল চন্দন। তখন একটি খড়বোঝাই মোটরচালিত ভ্যান শিশুটিকে প্রথম ধাক্কা দেয়।

চন্দন ছিটকে পড়ে গেলে তার পেটের উপর দিয়ে চলে যায় ভ্যানের চাকা। দুই টুকরো হয়ে যায় দেহ। সঙ্গে সঙ্গে অগ্রদ্বীপ ফাঁড়ি থেকে পুলিশকর্মীরা ছুটে আসেন। ততক্ষণে পালিয়ে যায় মোটরচালিত ভ্যানের চালক। পুলিশ তড়িঘড়ি শিশুটির শরীরের দু’ভাগ উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করে।

শিশুর দেহাংশ নিয়ে কাটোয়া হাসপাতালে যাওয়া হয়। তখনও কথা বলছিল চন্দন। ভাগীরথী পেরিয়ে কাটোয়া হাসপাতালে আসতে প্রায় ৪৫ মিনিট সময় লেগে যায়। জরুরি বিভাগে আনার পরেই নিস্তেজ হয়ে যায় শিশুটি। চিকিৎসকরা শিশুটিকে বাঁচানোর আর সুযোগ পাননি। শিশুর মর্মান্তিক মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে এলাকায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here