বাংলাজুড়ে জাকিয়ে শীত, পারদ নামল ০.৪ ডিগ্রি

246

ওয়েব ডেস্ক, ২২ জানুয়ারিঃ পারদ নামার ইঙ্গিত মিলেছিল সোমবার সকালেই। সেই ইঙ্গিত মিলে গেল রাজ্যজুড়ে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নীচে নেমে যাওয়ায়। ফের শহরের নতুন পারদ পরন। শহরে আরও খানিকটা নামল পারদ। মঙ্গলবারের ন্যায় বুধবার সকালে আরও ০.৪ ডিগ্রি নেমেছে কলকাতার পারদ। হাওয়া অফিস আগেই পূর্বাভাস দিয়েছিল দক্ষিণবঙ্গের সমস্ত জেলাতেই ২ থেকে ৩ ডিগ্রি অবধি নামতে পারে তাপমাত্রা। সেই পূর্বাভাস মেনেই সকালের কলকাতার পারদ ১৬ থেকে নেমে এসেছে ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

হাওয়া অফিস আগেই পূর্বাভাস দিয়েছিল দক্ষিণবঙ্গের সমস্ত জেলাতেই ২ থেকে ৩ ডিগ্রি অবধি নামতে পারে তাপমাত্রা। সেই পূর্বাভাস মেনেই মঙ্গলবার সকালেই কলকাতার পারদ নেমে আসে ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। আজ আরও কিছুটা নেমেছে পারদ।

বুধবার শহর কলকাতায় সেভাবে ঠান্ডা অনুভূত না হলেও উত্তরবঙ্গ ঢেকেছে ঘন কুয়াশায়। ডুয়ার্সের চা বাগান এলাকায়, জাতীয় সড়ক এবং রাজ্য সড়কে দৃশ্যমানতা অনেকটাই কম। ফলে যানবাহনের গতিও কম। কুয়াশায় ঢাকা চা বাগান এলাকায় আবার ঝিরিঝিরি শিশিরও পড়ছে। বইছে শৈত্যপ্রবাহও। বৃহস্পতিবার থেকে এখানে তাপমাত্রার পারদ নামবে বলেই জানাচ্ছেন আবহবিদরা। শুধু তাই নয়, দার্জিলিং এবং কালিম্পঙে আগামী দু’দিন বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে। আর সেই কারণেই ঠান্ডা বাড়বে। উত্তরবঙ্গের বৃষ্টির সৌজন্যে জাঁতিয়ে শীত পড়বে দক্ষিণবঙ্গেও। শুক্রবার নামতে পারে কলকাতার তাপমাত্রার পারদ। এদিন কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৩.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবার থেকে তা নিম্নমুখী হওয়ার পূর্বাভাসে খুশি শহরবাসী।

এদিকে, রাজধানী দিল্লিতে এখনও দাপুটে ইনিংস খেলছে শীত। এদিনও কুয়াশায় ঢেকেছে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা। সকালের পাঁচটি বিমানের গতিপথ বদলে দেওয়া হয়েছে। দিল্লির পাশাপাশি পাঞ্জাব, হরিয়ানা ও পূর্ব উত্তরপ্রদেশ ও বিহারও ঘন কুয়াশায় মুড়েছে।

বুধবার তা আরও কিছুটা কমে হয়েছে ১৩.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২৪.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা সোমবার দুপুর থেকেই নামতে শুরু করে। উত্তুরে হাওয়া জায়গা পেতেই রাতে সেই পারদ আরও নামে। ফলে বুধবার সকালেও উপস্থিত শীত। আজ সকালে শহরের বাতাসে জলীয় বাষ্পের পরিমাণ ৪৪ থেকে ৯৬ শতাংশের মধ্যে রয়েছে।