করোনা ভাইরাস আতঙ্কে উত্তরবঙ্গের যুবক, প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীর কাছে সাহায্যের আর্জি

1193

তুষার কান্তি বিশ্বাস, রায়গঞ্জঃ জাপানে চাকরি করতে গিয়ে করোনা ভাইরাসে আতঙ্কে কাটাচ্ছে উত্তরবঙ্গের এক যুবক। ওই যুবকের নাম বিনয় কুমার সরকার। তিনি জাপানের ইউকোহামা পোর্টে ডায়মন্ড প্রিন্সেস নামের একটি জাহাজে কেবিন ক্রু কাজ করেন। ওই যুবক তার নিজের ফেসবুকে পোস্ট করে এমনি আশঙ্কা জানালেন উত্তর দিনাজপুরের ওই যুবক।

তার দাবি, এদিন জাহাজে প্রায় ৬১জন কর্মী ইতিমধ্যে তারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ওই জাহাজে থাকলে এই ভাইরাসের কবলে পড়তে পারেন তিনিও। এমনি আশঙ্কাতেই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করলেন প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীর কাছে সাহায্যের আর্জি জানালেন উত্তর দিনাজপুরের এলাকার বাসিন্দা বিনয়বাবু।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ ১০ বছর ধরে বিদেশের বিভিন্ন জায়গায় জাহাজে কেবিন ক্রু হিসেবে কাজ করতেন বিনয়বাবু। চাকুলিয়া থানা হাতিপা এলাকার বাসিন্দা বিনয় বাবু তার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে গতকালকে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। সেখানে তিনি দাবি জানিয়েছেন যে জাপানের ইউকোহামা পোর্টে ডায়মন্ড প্রিন্সেস নামের একটি জাহাজে বর্তমানে তিনি কর্মরত রয়েছেন। তিনি ছাড়াও ওই জাহাজে আরো একশোর বেশি ভারতীয় বংশোদ্ভূত কেবিন ক্রু-র কাজ করেন। তাদের দাবি বেশ কয়েকদিন ধরেই করোনা ভাইরাসের কবলে পড়ছেন মানুষ।

প্রথমদিকে সংখ্যাটা কম থাকলেও বর্তমানে ৬১ জনের রক্তের নমুনা এই ভাইরাসের চিহ্ন মিলেছে। তাদেরকে বিভিন্ন সময়ে অ্যাম্বুলেন্সে করে কোন এক অজানা জায়গায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। সমস্ত বিষয়টি দেখে রীতিমতো আতঙ্কিত তিনি। দেশের প্রধানমন্ত্রী এবং পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী কাছে সাহায্যের দাবি করেছেন। বর্তমানের ভয়াবহ পরিস্থিতি থেকে তাদেরকে বাঁচাতে আরজি করেছেন। তিনি তার এই ফেসবুক পোস্ট কে নিয়ে ইতিমধ্যেই পরিবারের বাকি সদস্যদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। তারাও চাইছেন যেন যে কোন উপায়ে তাদের পরিবারের ছেলে সুস্থভাবে বাড়ি ফিরতে পারে এমন কোনো ব্যবস্থা প্রশাসন করুক।

যদিও বিনয় তাদের ফেসবুক পোস্টে জানিয়েছেন, এখনো পর্যন্ত তারা কেউ আক্রান্ত হয়নি। তবে জাহাজে যে কয়জন ভারতীয় বংশোদ্ভূত কেবিন ক্রু রয়েছে তাদের মধ্যে বেশকিছু বাংলার লোক রয়েছে। যে কোনো মুহূর্তে তাদের এই ভাইরাসের দ্বারা আতঙ্কিত হওয়ার একটা সম্ভাবনা থাকছে।

এদিন বিনয়বাবুর দাদা শ্যামল সরকার বলেন, আমার ভাই দীর্ঘদিন ধরে বিদেশের মাটিতে জাহাজে কাজ করে বর্তমানে কোন ভাইরাসের কারণে তাদের জাহাজের বেশিরভাগ লোকই এই ভাইরাসের কবলে পড়েছে আমার ভাই যথেষ্ট আগ্রহ রয়েছে বর্তমানে সরকার এবং মুখ্যমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রী কাছে আবেদন করব যেন তারা আমার ভাইকে উদ্ধার করতে আমাদের সাহায্য করে।