করোনা ভাইরাসের থাবায় মৃত্যু ৫৬৩, আক্রান্ত ২৮ হাজার

167

ওয়েব ডেস্ক, ৬ ফেব্রুয়ারিঃ নভেল করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিনে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৫৬৩। লাফিয়ে লাফিয়ে ক্রমশ বাড়ছে মৃত্যুর সংখ্যা। প্রকোপ থামার কোনও লক্ষণই দেখা যাচ্ছে না চিনে। গত ২৪ ঘণ্টায় ফের অন্তত ৭৩ জনের মৃত্যুর খবর মিলল। এর মধ্যে হুবেই প্রদেশেই ৭০ জন। মৃত্যুর সংখ্যা যা সোমবার ছিল ৩৬২, মঙ্গল তা বেড়ে ৪২৫, বুধবার ৪৯২ ও বৃহস্পতিবার তা বেড়ে ৫৬৩-এ।আক্রান্তের সংখ্যা ২৮ হাজার।  যত দিন যাচ্ছে পরিস্থিতি ক্রমশ হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে । সার্জিক্যাল মাস্ক-সহ বেশ কিছু চিকিৎসার সরঞ্জামের আকাল শুরু হয়েছে। মাস্কের জন্য লম্বা লাইন উহানে। গত দু’সপ্তাহ ধরে চিনের অন্যান্য অংশ থেকে পুরো বিচ্ছিন্ন হুবেই প্রদেশ। এই প্রদেশের উহান শহর থেকে ছড়িয়েছে মারণ করোনা ভাইরাস।

এক সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমে জানা গেছে, চিনে নতুন করে করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা ২ হাজার ৯৮৭ জন। মৃত্যুর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানাচ্ছে, চিনের অবস্থা আরও সঙ্গীন। এই মৃত্যু মিছিলের শেষ কোথাও কারোর জানা নেই। হু বিশ্ব জুড়ে জারি করেছে জরুরি স্বাস্থ্য পরিস্থিতি-হেল্থ এমার্জেন্সি।

তবে গবেষকদের বিরামহীন যুদ্ধ চলছে অদৃশ্য করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে। যদিও প্রতিষেধক এখনও হাতের নাগালে নেই। এই অবস্থায় চিন এখন মৃত্যুপুরী। করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় বিভিন্ন দেশ থেকে চিনে আসা ও বেরিয়ে যাওয়ার নিয়মে আনা হয়েছে বেশকিছু নিষেধাজ্ঞা। চিনের স্থল সীমান্ত লাগোয়া ১৪টি দেশ খুবই উদ্বিগ্ন। ইতিমধ্যে ভারত সহ প্রতিবেশী বিভিন্ন দেশ চিনা নীগরিকদের ভিসা দেওয়ার সাময়িক বন্ধ করেছে।

তবে শুধু চিন নয় চিনের বাইরে আরও  ২০ টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস। বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। রবিবার ফিলিপিন্সে নভেল করোনায় আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে সবথেকে খারাপ অবস্থা চিনেরই। নভেল করোনা ভাইরাস সেখানে মহামারির রুপ নিয়েছে। ইতিমধ্যেই ৫টি শহরে কার্ফু জারি কড়া হয়েছে।