তুফানগঞ্জে দলীয় কার্যালয়ে পতাকা লাগাতে গিয়ে আক্রান্ত সিপিএম কর্মী

20

তুফানগঞ্জ, ১৩সেপ্টেম্বরঃ ২০১১ সালে রাজ্যের ক্ষমতা হারাবার পর সাংগঠনিক দিক থেকে অনেকটাই ভেঙ্গে পরে সিপিএম। এর প্রভাব দেখা দেয় সর্বত্র। কমতে থাকে কর্মী সমর্থকদের ভীড়। বেদখল হয় দলীয় কার্যালয়গুলি। কোনঠাসা সিপিএম গত লোকসভা নির্বাচনে পদ্মের জয়ের পর ফের পায়ের তলার মাটি খুজতে শুরু করেছে। এই লক্ষ্যেই বেশ কিছু বেদখল হওয়া কার্যালয় উদ্ধার করতে সক্ষম হয় তারা। বৃহস্পতিবার তুফানগঞ্জের বলরামপুর ২ চৌরঙ্গী এলাকায় সিপিএমের কার্যালয়ে  দলীয় পতাকা লাগানোতে গেলে বাধা দেয় সিপিএমের কার্যালয়ের প্রতিবেশী পরিবার।

জানা গেছে রাজনৈতিক ভাবে তাঁরা তৃনমূল কংগ্রেস সমর্থক। অভিযোগ দীর্ঘদিন থেকে ওই কার্যালয়টি ব্যবহার করত ওই পরিবারের লোকেরা। এদিন সিপিএম কর্মী জাকির মন্ডলকে বেধড়ক মারধর করে ওই পরিবারের লোকজনেরা,এমনকি তাকে শ্বাসরোধ করে মারার চেষ্টা করে বলে অভিযোগ স্থানীয় সিপিএম নেতৃত্বের। ঘটনায় ওই কর্মীকে তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনায় হাসপাতালের বেডে শুয়ে অসুস্থ জাকির মন্ডল বলেন, আমরা কয়েকজন মিলে ওখানে পতাকা লাগাতে গেলে স্থানীয় ওই পরিবারের লোকেরা আমাদের উপর আক্রমণ চালায়। এরপর পাড়ার লোকেদের সহযোগিতায় তাদের হাত থেকে রক্ষা পাই।