দাউদ ঘনিষ্ঠের সম্পতি কেনায় প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে তলব ইডি

239

ওয়েব ডেস্ক, ১৬ অক্টোবরঃ প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রফুল প্যাটেলকে তলব করল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। জানা গেছে, ইকবাল মির্চি আর তাঁর পরিবারের সাথে জড়িত সম্পত্তি মুম্বাই আর তাঁর আশেপাসের এলাকায় আছে। আর সেই সম্পত্তি গুলোর মধ্যে একটি সম্পত্তি মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক দল এনসিপি এর নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রফুল্ল প্যাটেলের সাথে জড়িত।

অভিযোগ উঠেছে, ক্ষমতার অপব‌্যবহার করে এই পলাতক অপরাধীকে সাহায‌্য করেছিলেন প‌্যাটেল। ইডি সে বিষয়েই তদন্ত শুরু করেছে। মহারাষ্ট্রের বিধানসভা নির্বাচনের আবহে বিষয়টি নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর। মনমোহন সিং নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকারের আমলে অসামরিক বিমান পরিবহণমন্ত্রী ছিলেন প্রফুল প্যাটেল।

মঙ্গলবার সংবাদমাধ্যমে প্রফুল প্যাটেল বলেন, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে এবং আসল প্রশ্ন হল, “সিজে হাউসের মালিকের সঙ্গে আমার যোগ আছে কি না। ১৯৭০-এ ওই জায়গায় বাড়িটি ছিল। আমার বাবার মৃত্যুর পর পরিবারের ২১ জন শরিকের মধ্যে সমস‌্যা তৈরি হয়। ১৯৭৮-এ সম্পত্তিটি দেখাশোনা করা এবং দায়িত্ব নিতে বলা হয় মুম্বই হাই কোর্টকে।”

যদিও তাঁর যুক্তি মানছে না বিজেপি। প্রফুল প্যাটেলের দল এনসিপি এবং কংগ্রেসের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানিয়েছে তারা। একজন পলাতক অপরাধীর সঙ্গে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর যোগাযোগের অভিযোগ তুলে তারা সরব হয়েছে। বিধানসভা নির্বাচনে মহারাষ্ট্রে জোট গড়ে লড়াই করছে কংগ্রেস এবং এনসিপি।

মঙ্গলবার সাংবাদিক সম্মেলনে বিজেপি মুখপাত্র সম্বিত পাত্র বলেন, “একই কাগজে প্রফুল প্যাটেল এবং হাজরার স্বাক্ষর করার নথি রয়েছে। এর থেকে প্রমাণ হয়, তাদের মধ্যে সম্পত্তি নিয়ে চুক্তি ছিল। কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় প্রফুল প্যাটেলকে সোনিয়া গান্ধী কেন অন্তর্ভুক্ত করেছিলেন?” প্রফুল প্যাটেলের বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ অস্বীকার করেছে এনসিপি।