দাতাল হাতির পায়ে পিষ্ট হয়ে মৃত্যু স্ত্রীর আহত স্বামী, দেহ আটকে বিক্ষোভ স্থানীয়দের

181

বিশ্বজিৎ সরকার, শিলিগুড়িঃ হাতির পায়ে পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হল এক মহিলার। ঘটনায় গুরুতর আহত তার স্বামীও। ঘটনাটি ঘটেছে,বৃহস্পতিবার মিরিক ব্লকের পানিঘাটার চেঙ্গা বস্তি এলাকায়। মৃত বৃদ্ধার নাম শান্তি মায়া গহতরাজ(৭০)। আহত বৃদ্ধার স্বামী মণিকুমার গহতরাজ।

জানা গেছে, প্রত্যেক দিনের মতো এদিনও প্রাতভ্রমণে বেরিয়ে ছিলেন বৃদ্ধ দুই দম্পতি। এরপর প্রাতভ্রমণ সেরে বাড়ি ফেরার পথে এক দাতাল হাতি তাদের সামনে চলে আসে। কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই প্রথমে স্বামীকে দাতাল হাতিটি সুড় দিয়ে ধাক্কা মারে। এবং বৃদ্ধ লোকটি রাস্তার পাশে পড়ে যান। কিন্তু উনার স্ত্রী দাতাল হাতিটির মুখোমুখি চলে আসায় হাতিটির পায়ের নীচে চলে যান উনি। এরপর হাতিটি ওই বৃদ্ধার বুকে পারিয়ে চলে যায়। ঘটনায়মৃত্যু হয় ওই বৃদ্ধার।

এই দেখে স্থানীয়রা তরীঘরী খবর দেন বনদপ্তরকে। এবং এই ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে পানিঘাটা বনবিভাগের কর্মীরা। এরপর তাঁরা আহত বৃদ্ধকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। এরপর মৃতদেহটিকে আটকে রেখে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন স্থানীয়রা। এই খবর পেয়ে সেখানে ছুটে আসে পানিঘাটা ফাড়ির পুলিশ।

ঘাতক দাতাল

ঘটনায় স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, বনদপ্তরের টহলদারি না থাকার দরুন এই ঘটনা প্রায় প্রতিনিয়ত ঘটেই চলেছে। তাঁদের দাবি, ওই এলাকায় বেশি করে নজরদারি চালাতে হবে বনদপ্তরের। অবশেষে প্রশাসনের আশ্বাসের পর বিক্ষোভ তুলে নেন এলাকার স্থানীয়রা । এরপর বনদপ্তরের কর্মীরা মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায় ।

ঘটনা প্রসঙ্গে, পানিঘাটা রেঞ্জের রেঞ্জার সুরেশ নার্জিনারি বলেন, মৃতের পরিবারকে সরকারি ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে এবং গোটা এলাকায় টহলদারি আরও বাড়িয়ে দেওয়া হবে।