সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গিয়ে ‘পার্ক সার্কাসে মৃত্যু এক প্রতিবাদীর

103

ওয়েব ডেস্ক, ২ ফেব্রুয়ারিঃ সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে যে প্রতিবাদের পথ দেখিয়েছিল দিল্লির শাহিন বাগ, তারই প্রতিচ্ছবি বাংলার পার্ক সার্কাস। কোনও রাজনৈতিক অ্যাজেন্ডাকে সামনে না রেখে অসংখ্য মানুষ এসে দাঁড়িয়েছিলেন এই আইনের বিরুদ্ধে। দীর্ঘদিন চলা এই আন্দোলনের মঞ্চে শনিবার গভীর রাতে অসুস্থ হয়ে মারা যান বছর ৫৭-এর মহিলা সামিদা খাতুন।

সম্প্রতি এই আইনের যারা বিরোধীতা করছে তাদের উদ্দেশ্যে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছিল “এত ঠান্ডায় শাহীন বাগের মহিলারা মরেওনা কেন”। এর পরে শনিবার রাতে কলকাতার ‘পার্ক সার্কাসে’ প্রচন্ড ঠান্ডায় সামিদা খাতুন নামের এক ৫৭ বছরের এক বৃদ্ধা মারা গেলেন। তা নিয়ে চলছে রাজনৈতিক চর্চা।

গত ২৫ দিন ধরে পার্ক সার্কাস ময়দানে ক্যা, এনআরসি, এনপিআর-এর বিরুদ্ধে দিনরাত এক করে আন্দোলন চলছে। সেই আন্দোলনেই সামিদা খাতুন অংশ নেন। তিনি বলেছিলেন “যতদিন না এই কালো আইন বাতিল হচ্ছে, জীবনের শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত এখানেই থাকব।”

খোলা আকাশের প্রচণ্ড শীতে এই বৃদ্ধা নিজের কথা রাখলেন। আন্দোলনে অংশ নেওয়া সামিদার মূত্যুর পর আবেগ ঘন কণ্ঠে আন্দোলন কারীরা বলেন, না আমরা তাঁকে মারা গেছে বলাটা ভুল হবে। কারন উনি শহীদ। শহীদ ভারতের সংবিধান রক্ষার সংগ্রামে,ভারতের মিশ্র সংস্কৃতির ধারাকে অব্যাহত রাখার আন্দোলনে এবং ভারতের ধর্মনিরপেক্ষতা ও গণতান্ত্রিক পরিকাঠামোকে রক্ষা করার আন্দোলনে।