ডিএসপি ট্রাফিক চন্দন দাসকে সংবর্ধনা সদ্য পুলিশের কনস্টেবল পদে চাকুরি পাওয়া ছাত্ররা

879

কোচবিহার, ১৬ অক্টোবরঃ গত ২৭ জুন পুলিশ লাইনে কনস্টেবল পদে পরীক্ষার্থীদের নিয়ে কোচবিহার জেলা পুলিশের তথা ডিএসপি ট্রাফিক চন্দন দাসের তত্ত্বাবধানে প্রশিক্ষণ শুরু করেন। সেই প্রশিক্ষন চাকুরি প্রার্থী ছিল ৮০ জন। কিন্তু গতকাল তাদের মধ্যে রাজ্য পুলিশে কনস্টেবল পদে চাকরি পান ৫৫ জন। তারা সকলে অত্যন্ত দুঃস্থ পরিবার থেকে উঠে আসা ছাত্র। মূলত ডিএসপি ট্রাফিক চন্দন দাস এবং অন্যান্য সহ যোদ্ধাদের প্রশিক্ষণের ফলে  তারা আজ ওই কনস্টেবল পদে উত্তীর্ন হয়েছেন। সেই খুশিতে শিক্ষাগুরুকে গুরুদক্ষিনা দিতেই গুরুর দপ্তরে হাজির ওই ৫৫ জন কনস্টেবল পদে চাকুরি পাওয়া ছাত্ররা।

শুক্রবার তার দপ্তরে গিয়ে ডিএসপি ট্রাফিক চন্দন দাসকে ফুলে তোড়া দিয়ে সংবর্ধনা ও তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করলেন সদ্য পুলিশের কনস্টেবলের পদে চাকুরি পাওয়া ছাত্ররা।

এদিন এবিষয়ে ডিএসপি ট্রাফিক চন্দন দাস বলেন,‘লিখিত পরীক্ষার পর কীভাবে ছাত্ররা ইন্টারভিউয়ের মুখোমুখি হবে তা নিয়ে তাঁরা দুশ্চিন্তায় ছিল। তাদের নিয়মিত প্রশিক্ষণ দিয়েছিলাম। সব মিলিয়ে প্রায় ৮০ জন ছাত্র ছিল। তাদের মধ্যে ৫৫ জনই চাকরি পেয়ে গিয়েছে। তাঁদের সাফল্যে নিজেকে গর্বিত মনে হচ্ছে।’

এদিন ওই সংবর্ধনা দিতে আসা সদ্য পুলিশের চাকরি পাওয়া সৌরভ চক্রবর্তী নামে এক ছাত্র বলেন, ‘বাড়িতে মা, বাবা, ভাই রয়েছে। বাবা পেশায় পুরোহিত। বাড়ির আর্থিক অবস্থা একেবারেই ভালো নয়। এই চাকরি পেয়ে পরিবারের পাশে দাঁড়াতে পারব। চন্দন স্যার করোনা আবহের মধ্যে আমাদের জন্য যা করেছে তা কোন দিন ভোলার নয়। তার কাছে আমরা চিরকৃতজ্ঞ। চন্দন স্যারের প্রশিক্ষণ না পেলে হয়ত এটা সম্ভব হত না।’