রাজ্যপালের সাথে বৈঠক করলেন শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়

149

কোলকাতা, ২ ফেব্রুয়ারিঃ রাজ্যের রাজ্যপালের সাথে দেখা করলেন শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এটা সৌজন্য মূলক সাক্ষাৎকার হলেও পরিষদীয় মন্ত্রী হিসেবে সাংবিধানিক কাঠামো মেনে এইদিন মন্ত্রীর সাথে রাজ্যপালের এই বৈঠক হয় রাজভবনে। ওই বৈঠক থেকে বেড়িয়ে পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘ এদিনের বৈঠক নেহাতই সৌজন্যমূলক। আগে তো প্রতিদিনই রাজভবনে আসতাম, এখন সময় পাই না। তবে আমার একটা কর্তব্য আছে।’ পাশাপাশি, তিনি জানিয়েছেন, বিধানসভাকে কালিমালিপ্ত করা বা নির্বাচিত রাজ্য সরকারকে কালিমালিপ্ত করতে দেওয়া হবে না।

রবিবার দুপুর ৩টে নাগাদ রাজভবনে বৈঠকে বসেছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর ও রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। রাজ্যপাল এবং রাজ্য সরকারের মধ্যে যে ধারাবাহিক সংঘাত চলছে তার আবহে এই বৈঠক যে বাড়তি গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। 

আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হতে চলেছে রাজ্য বিধানসভার বাজেট অধিবেশন। সেখানে প্রথামাফিক বক্তৃতা করার কথা রাজ্যপালের। সম্ভবত সেই বিষয়েই এদিন রাজ্যপালের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রীর এই বৈঠক হয়।পাশাপাশি একাধিক প্রশাসনিক বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়েছে জানা গিয়েছে। পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানান, ৭ তারিখ থেকে বাজেট অধিবেশন, সেটা জানানো আমার কর্তব্য। এছাড়াও অনেক বিষয় নিয়েই কথা হয়েছে, যা সংবাদমাধ্যমে বলা যাবে না।

রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী যখন নিজে থেকে রাজভবনে এসে রাজ্যপালের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন তখন মনে করা হচ্ছে রাজ্যে দুই পক্ষের মধ্যে যে সাংবিধানিক দূরত্ব তৈরি হয়েছে তা কমাতে এবার আলোচনার পথেই হাঁটতে চাইছে রাজ্য সরকার। এছাড়াও আসন্ন রাজ্য বিধানসভায় বাজেট অধিবেশনের শুরুতে রাজ্যপালের অভিভাষণ নিয়েও কিছুটা হলেও অস্বস্তিতে রয়েছে রাজ্য সরকার। কারণ কেরল বিধানসভায় সাম্প্রতিককালে রাজ্যপালের অভিভাষণ ঘিরে বিক্ষোভ। সেই বিতর্কের জেরে সেখানকার রাজ্যপাল জানিয়েছিলেন, তিনি যা পড়েছেন তা ইয়াঁর নিজের কথা নয়। রাজ্য সরকারের বলে দেওয়া কথাই বলেছেন তিনি। বাংলায় এই পরিস্থিতি এড়াতে চাইছে মমতার সরকার বলে মনে করা হচ্ছে।