ছাদের জল পড়াকে কেন্দ্র করে দুই প্রতিবেশীর বিবাদে জখম পাঁচ

73

বিশ্বজিৎ মণ্ডল, মালদাঃ বাড়ির ছাদের জল পড়াকে কেন্দ্র করে দুই প্রতিবেশীর মধ‍্যে সংঘর্ষ।ঘটনায় আহত উভয় পক্ষের পাঁচজন। মঙ্গলবার মালদহের চাঁচল থানার দামাইপুর পূর্ব কালিগঞ্জলের ঘটনা। ঘটনায় দু-পক্ষই এদিন চাঁচল থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, এদিন সকাল দশটা নাগাদ বৃষ্টির জল বাড়ির ছাদের পাইপ দিয়ে জল প্রতিবেশীর বাড়িতে জল গড়িয়ে যাওয়ায় দুই প্রতিবেশীর মধ‍্যে বচসা তৈরী।যার ফলে দুই পক্ষই হাতাহাতি থেকে সংঘর্ষ বাধে।ঘটনায় গুরুতর ভাবে জখম হন,মার্জিনা বিবি ও তার বৌমা সাবেরা বিবি।সাবেরা স্বামী ভিনরাজ‍্যেই রয়েছে।

মার্জিনা বিবির অভিযোগ,তার প্রতিবেশী সাহাজান আলীর বাড়ির ছাদের বৃষ্টির জমা জল মর্জিনা বিবির বাড়ির উঠোনে বয়ে যাচ্ছে।তারা বহুদিন ধরে এই সমস‍্যার সম্মুখীন।আজও সেই জল তাদের উঠোনে বয়ে যাচ্ছিল।এই ঘটনায় প্রতিবাদ করতে গেল তার প্রতিবেশী সাহাজান আলী সহ তার পরিবারের তেড়ে আসে।এবং অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে তাদের বাড়িতে চড়াও হয়।সেই মুহুর্তে মর্জিনা বিবির বাড়িতে কেউ না থাকায় তাকে ও তার বৌমা কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ  মারা হয় বলে অভিযোগ।মুহুর্তে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে শ্বাশুড়ী ও বৌমা।স্থানীয়দের তৎপরতায় তাদের চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।বর্তমানে হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন।

এদিকে অপর প্রতিবেশী সাহাজান আলীর পাল্টা অভিযোগ,আমরা বাড়ি নির্মান করেছি দেড়ফুট জায়গা ছেড়ে।বৃষ্টি জল চলে যায় এটা মানছি তবে তা তো আটকান যায়না।এই কথা বলতে গেলেই মর্জিনা বিবি ও তার পরিবারের সদস‍্যরা লাঠি দিয়ে আমার মাথায় আঘাত করে।সেখানে আমি অচৈত‍ন‍্য হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ি।তবে পরিবারের সদস‍্যরাই তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে।শুধু তিনি নন তার বাবা আব্দুল কাদের ও ভাইবৌ আয়েশা বিবিও জখম হয়েছে। এনিয়ে চাঁচল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।পুলিশ দুই পক্ষের  অভিযোগ পেয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।