নন্দীগ্রামের বিধায়ককে তোপ দাগলেন প্রাক্তন বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়

206

ওয়েব ডেস্ক, ৭ জুলাইঃ মাত্র কয়েকঘণ্টা আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে  তীব্র আক্রমণ করেছেন সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। এবার নন্দীগ্রামের বিধায়ককে নিশানা করলেন প্রাক্তন বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। শুভেন্দুকে বিঁধে ফেসবুকে একটি পোস্ট করেছেন তিনি। যা নতুন করে উসকে দিয়েছে  দলবদলের জল্পনা।

ভোট পর্ব মেটার পর থেকে বিজেপির সঙ্গে দূরত্ব বাড়াতে শুরু করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একসময়ের বিশ্বস্ত ‘সৈনিক’ রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর সমর্থনে সোশ্যাল মিডিয়ায় সরবও হয়েছিল। যার জেরে কানাঘুষো শুরু হয়েছিল, হয়তো ফের তৃণমূলে ফিরবেন রাজীব। পরবর্তীতে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের মায়ের মৃত্যু সংবাদ পেয়ে তাঁর বাড়িতে গিয়েছিলেন প্রাক্তন বনমন্ত্রী। বুধবার শোকার্ত মুকুল রায়ের সঙ্গেও দেখা করেন তিনি। ফলে যে কোনও সময় রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় ঘাসফুল শিবিরে ফিরতে পারেন, এমনটাই ধারনা ওয়াকিবহলের মহলের।

এই পরিস্থিতিতে বুধবার বিকেলে ফেসবুকে দলেরই নেতার বিরুদ্ধে সরব হলেন প্রাক্তন মন্ত্রী। লিখলেন, “বিরোধী নেতাকে বলব….যাঁর নেতৃত্ব ও যাকে মুখ্যমন্ত্রী দেখতে চেয়ে বাংলার মানুষ ২১৩টি আসনে তাঁর প্রার্থীদের ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন সেই মুখ্যমন্ত্রীকে অযথা আক্রমণ না করে সাধারণ মানুষের দুর্দশা মুক্তির জন্য পেট্রল, ডিজেল ও রান্নার গ্যাসের মূল্যহ্রাস করাই এখন একমাত্র লক্ষ্য করা উচিত।”

রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই পোস্টেই স্পষ্ট, মুখ্যমন্ত্রীকে শুভেন্দু অধিকারীর এই লাগাতার আক্রমণ মোটেও ভালভাবে নিচ্ছেন না তিনি। দলের নেতাদের মধ্যে শুভেন্দুর বিরুদ্ধে এই ক্ষোভ অস্বস্তি বাড়িয়েছে বিজেপির। উল্লেখ্য, বুধবারই যুব মোর্চার সভাপতি পদ থেকে সরে এসেছেন সৌমিত্র খাঁ। পদত্যাগের পর শুভেন্দু অধিকারীকে তীব্র কটাক্ষ করেছেন তিনি। তিনি দলনেতাদের ভুল পথে চালনা করছেন বলে অভিযোগও করেছিলেন।