মুদির দোকানদারকে গুলি করে খুন, তৃণমূল বিজেপির রাজনৈতিক টানাপোড়েন!

97

ওয়েব ডেস্ক, ১২ অক্টোবরঃ মুদির দোকানদার খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালও এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়া জেলার রানাঘাটের কলাইঘাটা গ্রামে। মৃত ওই ব্যক্তির নাম হরলাল দেবনাথ (৫৫)। অবশ্য ওই মৃত ব্যক্তিকে নিয়ে বর্তমানে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক টানাপোড়েন। পদ্ম ও ঘাসফুল দুই শিবিরই দাবী করছেন মৃত ওই ব্যক্তি তাঁদের দলেরই কর্মী ছিলেন। তবে তিনি কোনও রাজনৈতিক দলের সাথে যুক্ত ছিলেন না বলে পরিষ্কার জানিয়ে দেন তার পরিবার।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার রাতে স্ত্রী চন্দনা দেবনাথের সঙ্গে দোকান চালাচ্ছিলেন হরলালবাবু। রাতে দুজন যুবক বাদাম কিনতে দোকানে আসে। সেই সময় দোকানের ভিতর বসে ছিলেন তার স্ত্রী। তখন হরলাল দোকানের বাইরে পায়চারি করছিলেন, ঠিক সেইসময় হঠাৎই বিকট শব্দ শুনতে পান চন্দনা দেবী।  আতঙ্কিত হয়ে বাইরে বেরিয়ে এসে দেখেন রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পরে কাতরাচ্ছেন তাঁর স্বামী। তার শরীর দিয়ে বয়ে চলেছে ক্রমাগত রক্তের ধারা এবং বাদাম কিনতে আসা ওই দুই যুবক সঙ্গে সঙ্গে সেখান থেকে পালিয়ে যায়। এরপর স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নিয়ে যান রানাঘাট মহকুমা হাসপাতালে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় কল্যাণীর জওহরলাল নেহরু মেমোরিয়াল হাসপাতালে। সেখানে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এরপরই ওই মৃতদেহ নিয়ে শুরু হয় রাজনৈতিক তরজা। রাজ্য ও কেন্দ্রের শাসক দল দাবি করতে শুরু করে, নিহত ব্যবসায়ী তাঁদের সক্রিয় কর্মী ছিলেন। তবে কী কারণে এই খুন, সে ব্যাপারে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।