হরিয়ানায় সরকার গড়বে কংগ্রেসঃ ভুপিন্দর সিং হুডা

544

ওয়েব ডেস্ক, ২৪ অক্টোবরঃ হরিয়ানা বিধানসভার চূড়ান্ত ফলপ্রকাশের আগেই ময়দানে নামল কংগ্রেস। রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা কংগ্রেস নেতা ভুপিন্দর সিং হুডা সাফ জানিয়ে দিলেন, পরিস্থিতি যাই হোক না কেন, রাজ্যে সরকার গঠন করবে কংগ্রেসই। সেক্ষেত্রে অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলির সাহায্যও চেয়েছে কংগ্রেস। সাংবাদিক সম্মেলন করে হুডা বলেন, ‘এটা স্পষ্ট বিজেপি বিরোধী জনাদেশ।’ এরপরই তাঁর সংযোজন, ‘প্রয়োজনে বিরোধীদের একসঙ্গে নিয়ে সরকার গঠন করব।’

তবে সকাল থেকে নির্বাচনী ফল দেখে অবাক খোদ বিজেপি শিবির৷ মেলেনি এক্সিট পোলেরও হিসেব। কেবল কংগ্রেসই নয় বিজেপিকে ধাক্কা দিয়েছে স্থানীয় দল জেজেপি। এই দলের কালো ঘোড়া হিসেবে সামনে আসলেন দুষ্মন্ত চৌতালা৷ তিনি নিজে তো পাশার দান উল্টে দিলেনই, তাঁর এই রাজনৈতিক ধাক্কায় সঙ্গী হলেন কিছু নির্দল জয়ী প্রার্থী৷ ৬ জন নির্দল প্রার্থী জয়ী হয়েছেন৷ তারা এই নির্বাচনে ধাক্কা দিয়েছেন বিজেপি এবং কংগ্রেসকে। এদের মধ্যে মেহামের বলরাজ কুণ্ডু, প্রিথলার নয়ন পাল রাওয়াত, পুন্দ্রি থেকে রণধীর সিং গোল্লেন, সিরসার গকুল সেতিয়া, রানিয়া থেকে রঞ্জিত সিং বাদশাপুর থেকে রাকেশ দৌলতাবাদ এই নির্বাচনে নতুন ভাবে সামনে এসেছেন।

ফলাফলের হিসেব বলছে, ৯০টি আসনের মধ্য বিজেপি ৩৯টি, কংগ্রেস ৩১, অন্যরা ১৮-২১টি৷ এই হিসেবই পরিষ্কার  হরিয়ানা নির্বাচনে দুশ্চিন্তা বাড়াচ্ছে নির্দলরা৷

ফলপ্রকাশের পর দেখা গিয়েছে নির্দল প্রার্থী কুণ্ডু মেহাম থেকে ধাক্কা দিয়েছেন গেরুয়া শিবির এবং কংগ্রেসকেও। তিনি ভোট পেয়েছেন ৩৩.৯৯ শতাংশ। এর আগে তিনি রোহাতের জিলা পরিষদের চেয়ারম্যান ছিলেন। তবে তিনি বিজেপির টিকিটের আশায় সেই পদ থেকে পদত্যাগ করেছিলেন। যদিও তিনি সামসের সিং খারখারার কাছে হেরে গিয়েছিলেন।

বাদশাপুর থেকে নির্বাচনে রাকেশ দৌলতাবাদ এবারে লড়েছিলেন নির্দল প্রার্থী হিসেবে। নির্দল প্রার্থী হিসেবে তিনি ভোট পেয়েছেন ৫২.৬১ শতাংশ। কড়া টক্কর দিয়েছেন বিজেপি এবং কংগ্রেস প্রার্থীদের। এছাড়া প্রিথালা থেকে প্রার্থী নয়ন পাল রাওয়াত জিতেছেন নির্দল হিসেবে। পেয়েছেন ৪৩.৯৮ শতাংশ ভোট। রানিয়া থেকে নির্দল প্রার্থী রঞ্জিত সিং জিতেছেন ৫৩৮২৫ ভোটে।