অনুব্রতর গড়ে প্রতারনার অভিযোগে গ্রেপ্তার তারই ভাইপো বিজেপি নেতা সুমিত মণ্ডল

76

পার্থ দাস, বীরভূমঃ চাকরী দেওয়ার নাম করে টাকা নিয়ে প্রতারনার অভিযোগে অনুব্রতর গড় থেকেই গ্রেপ্তার হলেন তারই ভাইপো তথা এলাকার বিজেপি নেতা সুমিত রঞ্জন মণ্ডল। তিনি আগে কাকার সাথে থাকলেও  লোকসভা ভোটের পর পরই তিনি পদ্ম শিবিরে নাম লেখান। শুক্রবার বোলপুর থেকে তাঁকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানা গেছে। শনিবার তাঁকে সিউড়ি আদালতে তোলা হয়। আদালতে তোলা হলে বিচারক তাঁকে পাঁচ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন।

লোকসভা ভোটের পরে অনুব্রত ভাইপো বিজেপিতে নাম লেখান। তখনই তিনি অনুব্রত মণ্ডলকে তাঁর দাদা হিসাবে স্বীকার করেন। যদিও সে কথা মানতে নারাজ ছিলেন কেষ্টা। শুক্রবার তাঁর গ্রেফতারির পর আরও একবার সে কথাই মনে করিয়ে দেন অনুব্রত।

উল্লেখ্য, গত ২৭ জুন বিজেপিতে যোগ দেন সুমিত। বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে, তিনি দলের শিক্ষক সংগঠনে কাজ করছিলেন। বীরভূম জেলায় তিনি একজন বিজেপির সক্রিয় শিক্ষক নেতা বলেও পরিচিত।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই বিজেপি নেতা তথা অনুব্রতর ভাইপো পুলিশের চোখে একজন অপরাধী  ছিল। একটি পুরনো মামলার কারণে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। যদিও পুলিশের এসব কথা মানতে নারাজ বিজেপি নেতা অনুপম হাজরা। তিনি সাফ জানিয়ে দেন, শুধুমাত্র বিজেপি করার জন্যই সুমিতকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর পাশাপাশি বিজেপি রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ প্রশ্ন ছুঁড়েছেন, সুমিত তো কোনও অশান্তি করছিল না, তাহলে তাঁকে কেন গ্রেফতার করল পুলিশ ?