তৃণমূলের বিধায়কদের বৈঠকে ডাক পেলেন বিজেপি নেতা

2095

ওয়েব ডেস্ক, ৫ নভেম্বরঃ জল্পনা ছিলই। এবার তা বাস্তবায়িত হল। ঘরে ফেরার পথে আরও খানিকটা সুগম হল। আগামী ৭ নভেম্বর তৃণমূলের বিধায়কদের বৈঠকে ডাক পেলেন বিজেপি নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায়। সূত্রের খবর, নিয়ম অনুযায়ী শোভন এখনও তৃণমূলের বিধায়ক। দল তাঁকে বহিষ্কারও করেনি। ফলে শোভনের জন্য দুয়ার খোলাই রয়েছে তৃণমূলের। এখন শোভনের সদিচ্ছা আর একবার মমতার ডাকের উপর সমস্ত কিছু নির্ভর করছে। তবে প্রাক্তন মেয়রকে ওই দিন তৃণমূল ভবনে মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠকে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে।

ভাইফোঁটায় যেমন মমতার এক ডাকে সাড়া দিয়েই কালীঘাটে ছুটেছিলেন।  তেমনই আর একবার ডাক পেলে তিনি যে বিধায়কদের বৈঠকে উপস্থিত হবেন না তার গ্যারান্টি কোথায়। আর তার থেকেও বড় কথা, শোভনের ডাক পাওয়ার সম্ভাবনাও প্রবল।

১৪ আগস্ট মুকুলের হাত ধরে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই শোভনকে ও বৈশাখীকে নিয়ে বিতর্ক দানা বাঁধে। দেবশ্রী রায়কে নিয়ে বিতর্কের শুরু। তারপর শোভনের সংবর্ধনা মঞ্চ থেকে ডাল-ভাত বিতর্কে সুর পঞ্চমে ওঠে। ক্রমেই দূরে সরে যেতে থাকেন শোভন। বিজেপিতে গিয়ে মুক্ত বাতাস পাননি মমতার স্নেহের কানন।

শেষমেশ জল্পনা শুরু হয় তাঁর ঘরওয়াপসি নিয়ে। শোভন ফিরছেন সত্যিই! শোভন ভাইফোঁটায় কালীঘাটে যাওয়ার পরই জল্পনার পারদ চড়ে গেল তাঁর ঘরওয়াপসি নিয়ে। রাজনৈতিক মহল ব্যাখ্যা দিতে শুরু করে মমতার বাড়িতে গিয়ে ভাইফোঁটা নেওয়া শোভনের ‘ঘরে’ ফেরারই সংকেত। আবার বিজেপি ছেড়ে তিনি ফিরছেন তৃণমূল কংগ্রেসে।