বাংলাদেশি মুসলিমদের ঘাড় ধাক্কা দিয়ে এরাজ্য থেকে বের করে দেব: দিলীপ ঘোষ

22

ওয়েব ডেস্ক, ১২ সেপ্টেম্বরঃ তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হুঁশিয়ারির পরে এনআরসি নিয়ে পাল্টা সুর চড়ালেন বঙ্গ বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বৃহস্পতিবার তিনি হুংকার ছেড়েছেন, ক্ষমতায় এলে বাংলাদেশ থেকে আসা ভারতে অনুপ্রবেশকারীদের গলা ধাক্কা দিয়ে বের করে দেবেন। পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরের জৌগ্রামের সভায় তিনি এ হুমকি দেন।

সেই সভায় দিলীপ ঘোষ অভিযোগ করেন, ওপার বাংলা থেকে মুসলিম সন্ত্রাসীরা এসে এখানে উৎপাত করছে। সে সব সন্ত্রাসীদের আমরা গলা ধাক্কা দিয়ে বের করে দেব। তিনি বলেন, সময় এসেছে তাদের ভারত ছেড়ে চলে যাওয়ার। নিজেদের তল্পিতল্পা গোছাতে শুরু করো। তবে বাংলাদেশ থেকে আসা হিন্দুরা ভারতের নাগরিকত্ব পাবেন বলে জানান এই বিজেপি নেতা। তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে আসা মানুষেরা মমতার ভোট ব্যাংক। তাই এ বিষয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের কোনো পদক্ষেপ নেই।

তিনি অভিযোগ করেন, বাংলাদেশ থেকে আসা অনুপ্রবেশকারীদের কারণে বাংলার নাগারিকরা চাকরি পাচ্ছে না। এরপর ভারতীয় কৃষকদের জন্য দেওয়া মমতা বন্দোপাধ্যায়ের বড় ধরণের ঘোষণার কটাক্ষ করেন এই নেতা। সম্প্রতি এক ঘোষণায় পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় বলেন, চাষের জন্য পাঁচ হাজার টাকা ও কৃষক মৃত্যুতে দুই লাখ টাকা দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ নিয়ে বরাবরই বিদ্বেষমূলক বক্তব্য দিয়েছেন এই বিজেপি নেতা। এর আগে পশ্চিমবঙ্গে ক্ষমতায় এলে রাজ্য থেকে শরণার্থীদের বিতাড়ন করতে নাগরিকপঞ্জি আনবে বলে ঘোষণা দিয়েছিলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সে সময় তিনি বলেছিলেন, ‘বাংলার  মাটিতে এক কোটির বেশি অবৈধ নাগরিক রয়েছে। যাদের বেশিরভাগই এসেছে বাংলাদেশ থেকে। ওই সব অবৈধ নাগরিকের কারণে পশ্চিমবঙ্গের অর্থনীতির হাল খারাপ হচ্ছে।’