দার্জিলিংয়ে শুরু বনধ পাহাড়ে উঠছে না গাড়ি, চিন্তিত পর্যটন ব্যবসায়ীরা

300

দার্জিলিং, ৪ অক্টোবর: পূজার মুখে পাহাড়ে বনধের ডাক। শ্রমিকদের পূজা বোনাসের দাবিকে সামনে রেখে চা বাগান শ্রমিক সংগঠনগুলি এই বনধ ডাকে। সেই কারনেই  শুক্রবার থেকেই পুরো শুনসান দার্জিলিংএর রাস্তা। বনধের জেরে বন্ধ রয়েছে  দোকান বাজার, রাস্তায় চলছে না যানবাহনও। একই চেহারা কালিম্পং, কার্সিয়াং সহ মিরিকেও। এদিন শিলিগুড়ি থেকেও কোনো যাত্রীবাহী বা পণ্যবাহী গাড়ি পাহাড়ের পথে ওঠেনি।

বিভিন্ন চা বাগান শ্রমিক সংগঠনগুলির ডাকে শ্রমিকদের ২০ শতাংশ হারে পূজা বোনাসের দাবিতে আজ ভোর ৪টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত শুরু হয়েছে ১২ ঘণ্টার বনধ। তাৎপর্যপূর্ণভাবে দেখা যাচ্ছে, এই বনধে সারা দিয়েছে ডান-বাম সহ সমস্ত শ্রমিক সংগঠনগুলি। বাদ যায়নি তৃণমূল কংগ্রেসও। তারাও  এই আন্দোলনকে সমর্থন জানিয়েছেন। আগামী কালের মধ্যে বোনাস সমস্যার নিষ্পত্তি না হলে ৬ অক্টোবর থেকে আমরণ অনশনে বসার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার সভাপতি বিনয় তামাং।

এদিকে এদিন থেকেই রাজ্যে শুরু হচ্ছে পুজো। যার দরুন পর্যটকরা পা রাখবেন পাহাড়ে। এই পর্যটকেরা শিলিগুড়িতে এসে পৌঁছনোর পর কীভাবে তাঁদের পাহাড়ে নিয়ে যাবেন, সেই ভাবনায় চিন্তিত পর্যটন ব্যবসায়ীরা।