ইসলামপুরে গৃহবধূর ঝুলন্ত দেহকে ঘিরে চাঞ্চল্য

54

তুষার কান্তি বিশ্বাস,উত্তর দিনাজপুরঃ শ্বশুর বাড়িতে গৃহবধূর দেহ লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া গিয়েছিল। এক্ষেত্রে নিহতের মাতামহের অভিযোগ, গৃহবধূকে ফাঁসি দিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনাটি উত্তর দিনাজপুর জেলার ইসলামপুর শহরের আলীনগর এলাকায়। নিহতের নাম আনভারা খাতুন (২২)। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে মহিলাকে ঝুলন্ত অবস্থায় স্থানীয় লোকজন পুলিশকে জানায়, পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ইসলামপুর হাসপাতালে পাঠায়। ইতিমধ্যে পুলিশ বিষয়টির তদন্ত শুরু করছে।

নিহতের বাবা-মা জানায়, চার বছর আগে চোপড়া থানার অধীনে, ৩ মাইল এলাকার লালু গছ আনভ্রার বিয়ে হয় ইসলামপুরের আলিনগরের মোহাম্মদ জসিমের সাথে। বিয়ে করার পর থেকে তার স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকেরা  বিভিন্নভাবে অত্যাচার করত বলে অভিযোগ করে তারা। তাদের অভিযোগ কখনও মারধর ও নির্যাতন করতেন, কখনও যৌতুকের নামে এবং কখনও কখনও অন্য কোনও কারণে অত্যাচার করত। এই হামলার কারণে ওই গৃহবধূর দুই সন্তানকে ধ্বংস করা হয়েছে বলেও তাদের অভিযোগ।

এরপর সেই মহিলা কোন রকমে সন্তানের জন্ম দিতে না পারার কারণে তার স্বামী তাকে চরম অত্যাচার করতে শুরু করে। এই ধারাবাহিকতায় তার উপর শারীরিক নির্যাতন হয়। এরপরই গতকাল তার মৃত্যুর খবর এসেছে। নিহতের শ্বশুরবাড়ির লোকজন এই ঘটনাকে আত্মহত্যার ঘটনা হিসাবে উল্লেখ করলেও, নিহতের পরিবার বলছে যে তাকে শ্বশুর বাড়ির লোকেরা হত্যা করে ঝুলিয়ে রেখেছে।

এ ঘটনায় নিহতের মা মর্জিনা খাতুন জানান, ইসলামপুর থানায় ওই ব্যক্তিদের পক্ষ থেকে হত্যার মামলা দায়ের করা হয়েছে।