কোচবিহারে দলবদলের হিড়িক, রবির হাত তৃণমূলে ২৫ টি পরিবার, আইএনটিটিইউসসিতে যোগ ২০ জন এনবিএসটিসি কর্মী

95

কোচবিহার, ১২ জুলাইঃ তৃতীয় বারের জন্য এরাজ্যের ক্ষমতায় ফেরার পর থেকে বিভিন্ন দল থেকে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদানের কার্যত হিড়িক পড়ে গিয়েছে। আজও কোচবিহার ১ নম্বর ব্লকের দেওয়ানহাট গ্রাম পঞ্চায়েতের ঘেগিরঘাট এলাকায় তৃণমূলের পেট্রোপণ্য মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদ মঞ্চে এসে যোগদান করেন বিজেপির ২৫ টি পরিবার। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য কমিটির সহ সভাপতি রবীন্দ্রনাথ ঘোষ।

এছাড়াও এদিন উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থায় তৃণমূল কংগ্রেসের শ্রমিক সংগঠন আইএনটিটিইউসসি অনুমোদিত ড্রাইভার এন্ড তৃণমূল শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়নে যোগদান করেন সিটু ও আইএনটিইউসি ছেড়ে আসা ২০ জন কর্মী। ওই সংগঠনের রাজ্য কমিটির সম্পাদক দিপেশ কুমার দাস বলেন, “তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় আসা তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উন্নয়ন মূলক কাজ ও কেন্দ্রের জনবিরোধী নীতি, রান্নার গ্যাস, পেট্রোল ডিজেলের আকাশ ছোঁয়া দামের প্রতিবাদ জানিয়ে উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহন সংস্থার ২০ জন কর্মী আমাদের সংগঠনে যোগ দিয়েছেন।”

প্রাক্তন মন্ত্রী তথা তৃণমূল কংগ্রেসের রাজ্য কমিটির সহ সভাপতি রবীন্দ্রনাথ ঘোষ বলেন, “বিজেপির মানুষে মানুষে বিভেদ সৃষ্টি ক্ষমতা দখল করার অপচেষ্টা, আর নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর মূল্য বৃদ্ধি সাধারণ মানুষকে বিপাকে ফেলে দেওয়ার চক্রান্ত সবাই ধরে ফেলেছে। তাই ভোটের সময় যারা ভুল করে বিজেপিকে ভোট দিয়ে ফেলেছিলেন, তাঁরাও এখন দলে দলে তৃনমূলে ফিরতে শুরু করেছেন। এভাবে চলতে থাকলে বিজেপি দলটাই এরাজ্য থেকে একদিন উঠে যাবে।”

যদিও বিজেপির পক্ষ থেকে এই দলবদল নিয়ে কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি।