পঞ্চমীর সন্ধ্যাতেই কোচবিহারে মানুষের ঢল, উদ্ধোধন হল জেলার বেশ কিছু পূজা মণ্ডপের

451

কোচবিহার ৩ অক্টোবরঃ পঞ্চমীর সন্ধ্যাতে কোচবিহার শহরে মানুষের ঢল। উৎসবের মেজাজে অফুরন্ত প্রানের উচ্ছ্বাস নিয়ে রাজপথে অগণিত মানুষ। দেবী দর্শন, খুনসুটি প্রেম প্রীতি ভালবাসা, চুটিয়ে আড্ডা, জমিয়ে খাওয়া দাওয়া দেবী পক্ষের পঞ্চমী থেকে। এদিন কোচবিহার শহরের ঐতিহ্যবাহী পুরাতন পোস্ট অফিস পাড়ার পূজার সূচনা হয়। এই পূজার উদ্ধোধন করেন কোচবিহার পৌরসভার পৌরপিতা ভূষণ সিংহ।

এবছর এই পূজা ৮৮ তম বছরে পা দিল। এবারে তাঁদের ভাবনা হিমাচলপ্রদেশের বুদ্ধ মন্দির। কোচবিহার শহরের নজর কারা পূজা গুলির মধ্যে পুরানত পোস্ট অফিস পাড়ার পূজা অন্যতম। ইতিমধ্যেই এই পূজা মণ্ডপে মানুষের ঢল নেমেছে। জলপাইগুড়ির আলো মন্দিরের আলো এই সুন্দরতা আরও ফুটিয়ে তুলেছে। পূজা কমিটির পক্ষে ভাস্কর পাল জানিয়েছেন, বিশ্ব জুড়ে যে হানা হানি চলছে আমরা তার বিরুদ্ধে, তাই অশান্তির বিরুদ্ধে যে শান্তির বানী তিনি গোটা বিশ্ব জুড়ে ছ্রিয়েছিলেন, তাকে সম্নান জানিয়ে আমাদের এবারের ভাবনা বৌদ্ধ মন্দির।

ভিন্ন ভিন্ন তিনটি পূজার উদ্ধোধনে মন্ত্রী

এছাড়া পঞ্চমীর সন্ধ্যায় কোচবিহার শহরের নিউটন ইউনিট, এসিডিসি ক্লাবের পূজা উদ্বোধন হয়।  কোচবিহার ২ নং ব্লকের কালজানি বাজার, বাবুরহাট দুর্গা মন্দির কমিটি, খাগড়াবাড়ি মহিষবাথানের বিদ্যাসাগর ক্লাব ও পাঠাগারে পূজার উদ্বোধন হয়।

তুফানগঞ্জের দেওচড়াই উত্তরণ সংঘের সুবর্ণ জয়ন্তী বর্ষ দুর্গোৎসবের সূচনা করেন রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। এই সন্ধ্যায় তুফানগঞ্জের জয়হিন্দ ক্লাব, নব বিথীকা ও জোড়াই মোড়ের সর্বজনীন দুর্গোৎসবের উদ্বোধন হয়। এগুলির উদ্বোধন করেন কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ার লোকসভার কেন্দ্রের সাংসদ যথাক্রমে নিশীথ প্রামাণিক ও জন বার্লা।    

 অন্যদিকে, বৃষ্টির সাময়িক বিরতি বেশ কিছুদিন টানা প্রবল বর্ষণের পর কিছুটা স্বস্তি, দেখা মিলেছে ঝলমলের আকাশের। কোচবিহারের বেশ কিছু পূজার সাজ সম্পূর্ণই হতে পারে নি প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারনে তবে এর মধ্যেই তৃতীয়া থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছে পূজার প্যান্ডেল উদ্বোধনের পালা । ওইদিন দিনহাটার বিগ বাজেটের বেশ কিছু পূজার উদ্বোধন হয়। স্থানীয় বিধায়ক উদায়ন গুহ ছাড়াও রাজ্যের মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষও উপস্থিত ছিলেন ওই অনুষ্ঠান গুলিতে। চতুর্থীর সন্ধ্যায় উদ্বোধন হয়ে গেছে কোচবিহার শহরের গান্ধীনগর এলাকার লীলা স্মৃতি ভবানী মন্দিরের পূজার। ৭০ তম বর্ষের এই পূজার উদ্বোধন করেন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় কাউন্সিলার রেবা কুণ্ডু, শুভজিৎ কুণ্ডু সহ অনেকে। ৬১ তম বর্ষের ভারত ক্লাব ও ব্যায়ামাগারে পূজার উদ্বোধন হয় ওই সন্ধ্যায়। এই পূজার উদ্বোধন করেন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক মিহির গোস্বামী, পুরপ্রধান ভূষণ সিংহ প্রমুখ।