অনলাইন ঠকবাজের পাল্লায় বিজেপি সাংসদ,স্মার্ট ফোনের বদলে পেলেন পাথর

1252

বিশ্বজিৎ মণ্ডল, মালদাঃ প্রতারণার শিকার হলেন খোদ সাংসদ। অনলাইন পরিষেবায় প্রতারিত হয়ে রীতিমত কিং কর্তব্য বিমূঢ় অবস্থা তার। সদ্য ভোটে জিতে সাংসদ হয়েছেন তিনি। মালদা ও দিল্লী দৌড়ো দৌড়ীর মধ্যেই প্রতারিত হলেন তিনি। অনলাইনে স্মার্টফোন অর্ডার দিয়ে তার বদলে পেলেন পাথর।

একি কাণ্ড ! প্রতারিত হলেন সাংসদও। বাধ্য হয়ে শেষ পর্যন্ত ইংরেজবাজার থানায় অ্যামাজন কোম্পানির নামে অভিযোগ দায়ের করলেন উত্তর মালদহের সাংসদ খগেন মুর্মু। ঘটনাটি ঘটেছে মালদহ ইংরেজবাজার থানা এলাকার। ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

উত্তর মালদহের বিজেপি সাংসদ খগেন মুর্মু। এর আগেও তিনি বিধায়ক ছিলেন। সম্প্রতি অনলাইনের মাধ্যমে অ্যামাজনে একটি স্মার্টফোন দীপাবলীর অফারে বুক করেন। যার মূল্য প্রায় ১১ হাজার ৯৯৯ টাকা। অর্ডার অনুযায়ী সোমবার সকালেই তাঁর বাড়ি ইংরেজবাজার শহরের মকদমপুরে আসে অ্যামাজন কোম্পানির পার্সেল বাড়ির লোকজন ওই পার্সেলটি গ্রহণ করে।

বাড়ির শিশু কিশোরেরা তো আনন্দে আত্মহারা। নতুন মোবাইল ফোনটি দেখতে কেমন হবে এ নিয়ে উৎসুক ওই পরিবারের অনেকেই। কিন্তু প্যাকেট খুলতেই একি কাণ্ড ! স্মার্ট ফোনের বদলে এলো ওই মাপের একটা পাথর। নিমিষে বদলে গেল বাড়ির পরিবেশ। বাক্স খুলতেই চক্ষু চরকগাছ সাংসদেরও। বিজেপির সাংসদ দেখতে পান মোবাইল ফোন তাতে নেই। ভিতরে শুধু রয়েছে টুকরো পাথর।

সাংসদ খগেন মুর্মু জানান, অ্যামাজন কোম্পানি মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে। এদিন প্রতারণার শিকার আমি নিজেও। এই সমস্ত কোম্পানীগুলি কোটি কোটি টাকা মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করছে। অনলাইন পরিষেবা একটি বৃহৎ পরিষেবায় পরিণত হয়েছে। সে ক্ষেত্রে একটা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ কোম্পানি কিভাবে এই ধরনের ঘটনা ঘটায়। তাহলে কি এর পেছনে অন্য অসাধু চক্র রয়েছে। সমস্ত ঘটনা লিখিত আকারে ইংরেজবাজার থানার জানানো হয়েছে। এই প্রতারণা থেকে মানুষকে মুক্তি দিতে

যতদূর যেতে হয় আমি যাব। মানুষের সঙ্গে প্রতারণা কখনোই বরদাস্ত করা হবে না। এদিকে অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ইংরেজবাজার থানার পুলিশ।