পলাতক ধর্মগুরু নিত্যানন্দের বিরুদ্ধে ‘ব্লু কর্নার’ নোটিশ জারি ইন্টারপোলের

188

ওয়েব ডেস্ক, ২৩ জানুয়ারিঃ পলাতক স্বঘোষিত ‘গডম্যান’ স্বামী নিত্যানন্দ ওরফে এ রাজশেখরের বিরুদ্ধে বুধবার ব্লু কর্নার নোটিশ জারি করল ইন্টারপোল।শিশু অপহরণ, আহমেদার আশ্রমে তাদের আটকে রেখে শিশুশ্রমিক হিসেবে জোর করে কাজ করানো ও ধর্ষণের মতো একাধিক মামলায় গুজরাত ছাড়াও কর্নাটক পুলিশের খাতায় ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ নিত্যানন্দ। আশ্রমের দু’টি মেয়ে নিখোঁজ হওয়ার পরেও নিত্যানন্দের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের হয়েছিল।এর পর গ্রেফতারি এড়াতে দেশ ছেড়ে পালিয়ে যায় এই ‘গডম্যান’। ফলে, তার গ্রেফতারিতে ইন্টারপোলের দ্বারস্থ হয় পুলিশ।

ইন্টারপোলের ব্লু কর্নার নোটিসের অর্থ হল, যে দেশ নিত্যানন্দের সম্পর্কে খোঁজ পাবে, সেই দেশই যেন সেই তথ্য তৎক্ষণাৎ পেশ করে। এরপর নিত্যানন্দের বিরুদ্ধে রেজ কর্নার নোটিসও জারি হতে পারে বলে খবর।

আপাতভাবে জানা গিয়েছে, নিত্যানন্দ ইকুয়েডরের কাছে কোনও জায়গায় আপাতত গা ঢাকা দিয়েছেন। সেখান থেকেই একের পর অক ভিডিও তিনি পেশ করে চলেছেন। এদিকে, তাঁর বিরুদ্ধে জারি হওয়া একের পর এক সমনের কোনও উত্তর আসেনি। ফলে এবার স্বঘোষিত ধর্মগুরুকে খুঁজে বার করতে ইন্টারপোলের সহায্য নিয়েছে গুজরাত পুলিশ।

অন্যদিকে, পলাতক গডম্যানের বিরুদ্ধে একটি আবেদনের শুনানি চলাকালীন কর্ণাটক হাইকোর্ট রাজ্য সরকারের কাছে জানতে চায়, কীভাবে নিত্যানন্দকে দেশ ছেড়ে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হলো, যখন সে বর্তমানে বিচারাধীন একটি ধর্ষণের মামলায় একজন অভিযুক্ত।বেশ কিছুদিন ধরে বিতর্কে জড়িয়ে থাকা নিত্যানন্দকে একাধিক মামলায় খুঁজছে গুজরাট এবং কর্ণাটকের পুলিশ। এর মধ্যে আহমেদাবাদের কাছে তার আশ্রমে শিশুদের অপহরণ করে ডোনেশনের জন্য বন্দী করে রাখার মামলাও রয়েছে।

এর আগে ফাঁস হওয়া ফুটেজে তাকে আপত্তিজনক অববস্থায় দেখা যাওয়ার পর ২০১০ সালে ধর্ষণের অভিযোগে হিমাচল প্রদেশে গ্রেফতার করা হয় নিত্যানন্দকে।