পূজা পেরোতেই ফ্যাশন শোয়ে মাতলো ইসলামপুর

64

তুষার কান্তি বিশ্বাস, ইসলামপুর:  দুর্গাপূজার রেশ থাকতেই এই প্রথম ইসলামপুরে সাত থেকে বারো বছর বয়সের কচিকাঁচাদের পাশাপাশি কিশোর কিশোরীদের জন্য অনুষ্ঠিত হল ফ্যাশন শো “দ্যা ভাইরাস মিস্টার এন্ড মিস ইসলামপুর জুনিয়র ২০১৯”। বৃহস্পতিবার ইসলামপুর বাস টার্মিনাসে আয়োজিত ওই ফ্যাশন শো এর উদ্বোধন করে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করেন কবি নিশিকান্ত সিনহা, সুশান্ত নন্দী ,স্বরূপনান্দ বৈদ্য ও উত্তম সরকার।

সেই উদ্বোধনী পর্বে সামিল হয়েছিলেন কবি মৌসুমী নন্দী, সাংবাদিক তুষার বিশ্বাস, শুভজিৎ চৌধুরী সহ বিশিষ্টরা। অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যাক্তিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন শুভদীপ চক্রবর্তী,শঙ্কর পাল,আইনজীবি করুণাময় দাস,যন্ত্র সংগীত শিল্পী ভবতোষ সিনহা,নৃত্যশিল্পী তোতন ব্যানার্জী প্রমুখ।

বিচারক ছিলেন শংকর ঘোষ, সৌভিক চক্রবর্তী এবং রিত্ত্বিকা মুরারিয়া। অনুষ্ঠানটির অফিসিয়াল গ্রূমার ছিলেন চঞ্চল যাদব। এদিন স্মৃতিকনা রায়ের উদ্বোধনী নৃত্যের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের মূল স্রোতে প্রবেশ। এরপর একক সংগীতে অংশ নেন সংগীত শিল্পী সজীব বৈদ্য। এদিন মিস ইসলামপুর জুনিয়র এবং মিস্টার ইসলামপুর জুনিয়র হয়ে চ্যাম্পিয়ন এর ট্রফি ছিনিয়ে নেয় যথাক্রমে অহনা সরকার ও তৌষার্তিক নন্দী।

ফ্যাশনের মুহূর্ত

দুটি বিভাগে ফার্স্ট রানার্স আপ হয় শ্রীদার্ত্রী চ্যাটার্জী, রোহিত রাউৎ। সৌভিক চক্রবর্তী পরিচালিত চিরায়ত বাঙালিয়ানার সাজে প্রফেশনাল রাউন্ড ছিল অসাধারণ। র‍্যাম্প শো যেন এক অন্য ভাবনা। দুটিতেই দর্শকদের প্রশংসা কুড়িয়েছে। শেষ পর্বটিকে গানে গানে রাঙিয়ে দেন এপার আর ওপার বাংলার শিল্পী সুজন মল্লিক।সমগ্র অনুষ্ঠান সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন বিশ্বরূপ বিশ্বাস। আয়োজক সংস্থার কর্ণধার সুজন পাল জানান, এধরণের অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এগিয়ে যাক শহর।