জয় শ্রীরাম বলায় বেধড়ক মার বিজেপি কর্মীকে,অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

217

শ‍্যাম বিশ্বাস, উওর২৪পরগনাঃ জয় শ্রীরাম বলায় এক বিজেপি কর্মীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে, বসিরহাট মহকুমার হাড়োয়া ব্লক এর গোপালপুর ১ নং অঞ্চলের লেবুতলা গ্রামে।

অভিযোগ, শনিবার বিকালে স্থানীয় বিজেপি কর্মী রঞ্জিত মন্ডল নামে ওই ব্যক্তি স্থানীয় কেন্দুয়া বাজারে মাছ কিনে বিক্রির উদ্দেশ্যে লেবুতলা গ্রামে যেতেই কিছু বাচ্চা তাকে ঘিরে আবদার করতে থাকে জয় শ্রী রাম বলার জন্য। সেই সময় ওই ব্যক্তি জয় শ্রী রাম বললে স্থানীয় তৃণমূল নেতা তারক পারুই তাঁকে ঘিরে ধরে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে বলে অভিযোগ। এরপর স্থানীয় কিছু তৃণমূল কর্মীরা এসে তাঁকে মাটিতে ফেলে বেধড়ক মারধর করতে থাকেন। পাশাপাশি তাঁকে কিল-চড়,ঘুষি সঙ্গে লোহার রড দিয়ে  মারধর করে বলে অভিযোগ উঠে আসছে।

এরপর রঞ্জিতবাবুর চিৎকারে  গ্রামের স্থানীয়রা ছুটে আসলে ওই তৃণমূল নেতা ও তাঁর সাঙ্গপাঙ্গরা সেখান থেকে পালিয়ে যায় বলে অভিযোগ। পাশাপাশি ওই বিজেপি কর্মীর কাছে থাকা চার হাজার টাকা ছিনতাই করে করে নিয়ে যায় বলেও অভিযোগ। পরে স্থানীয়রা বিজেপি কর্মীকে উদ্ধার করে হাড়োয়া গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যায় চিকিৎসার জন্য। ঘটনার খবর পেয়ে সেখানে ছুটে আসে হাবড়া থানার পুলিশ। ঘটনায় ওই থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন রঞ্জিত মন্ডল। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

হাসপাতালের বেডে শুয়ে আহত ওই বিজেপি কর্মী বলেন,আমি বাজার থেকে মাছ কিনে বাড়ি ফেরার পথে ওরা আমাকে ঘিরে ধরে বেধড়ক মারধর করে। অল্পের জন্য পালিয়ে আমি প্রানে বেঁচে যাই।   

অন্যদিকে, স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্যপ্রনিত। আমাদের দল হিংসার রাজনীতি করে না। ওটা বিজেপির গোষ্ঠী কোন্দলের ফল। এর সাথে তৃণমূলের কোনও যোগ নেই।