মদ খাওয়ার প্রতিবাদ করায় শ্বশুর ও স্ত্রীকে বাঁশ দিয়ে পেটানোর অভিযোগ জামাইয়ের বিরুদ্ধে

79

শ‍্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪পরগনাঃ মদ খাওয়ার  প্রতিবাদ করায়  শ্বশুর ও স্ত্রীকে বাঁশ দিয়ে মারধর করল জামাই। ঘটনাটি ঘটেছে হাবড়া থানার বয়রাগাছি এলাকায়।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আট বছর আগে হাবড়া থানার বিরা শ্বেতপুরের সনাতন দাসের সাথে ভালোবেসে বিয়ে হয় হাবড়া হাবড়া থানার বয়রাগাছি এলাকার রাম দাসের মেয়ে মিনতি দাসের সঙ্গে । পরিবারের অভিযোগ, দীর্ঘদিন ধরে মিনতির মদ্যপ অবস্থায় শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার চালাত সনাতন । এর প্রতিবাদে  রোজ কপালে জুটতো বেধড়ক মার। অবশেষে অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে চারমাস আগে বাপের বাড়ি চলে আসে মিনতি। তাদের একটি ছয় বছরের পুত্র সন্তানও রয়েছে। স্ত্রী মিনতির অভিযোগ গত দুমাস আগে জোর করে ছেলেকে নিয়ে যায় তাঁর স্বামী ।

অভিযোগ গতকাল রাতে দুটি বাইকে করে মদ্যপ অবস্থায় তাঁর স্বামী ও চার বন্ধু মিনতির বাড়িতে এসে হঠাৎই তাঁর বাবা এবং তাঁকে বাঁশ দিয়ে এলোপাথারি মারতে শুরু করে। এরপর তাঁদের চিৎকারে সজাগ হয় স্থানীয় বাসিন্দা। পরে তাঁরা এলে স্বামী ও ৪ বন্ধু সেখান থেকে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় রাতেই আহত অবস্থায় মিনতি ও তাঁর বাবাকে স্থানীয় হাবড়া হাসপাতালে নিয়ে আসা হয় চিকিৎসার জন্য।

ঘটনায় মিনতির বাড়ির পক্ষ থেকে জামাই সনাতন ও তাঁর বন্ধুদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয় হাবড়া থানায়। তাঁদের অভিযোগের ভিত্তিতে জামাই সনাতন দাস এবং তার বন্ধু ভোম্বল দাসকে গ্রেফতার করে হাবড়া থানার পুলিশ । ধৃত ওই দুজনকে আজ বারাসাত আদালতে তোলা হবে ।